• আজ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জেরুজালেম মুসলিমদের পবিত্র জায়গা, ট্রাম্পের শান্তি চুক্তি মানি না : এরদোয়ান

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের অবিচ্ছেদ্য রাজধানী ঘোষণা করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা একেবারে গ্রহণযোগ্য নয় মন্তব্য করে তা প্রত্যা’খ্যান করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

একই সঙ্গে ট্রাম্পের তথাকথিত ‘শতাব্দির সেরা চুক্তি’ ইসরায়েলের দখলদারিত্বকে বৈধকরণের প্রচেষ্টা বলেও নি’ন্দা জানিয়েছেন তিনি।

এরদোয়ান বলেন, জেরুজালেম মুসলিমদের পবিত্র জায়গা। জেরুজালেমকে ইসরায়েলের হাতে তুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত একেবারে অগ্রহণযোগ্য। এই পরিকল্পনায় ফিলিস্তিনিদের অধিকার উপেক্ষা এবং ইসরায়েলি দলখদারিত্বের বৈধতা দেয়া হয়েছে।

গাজা এবং পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সংঘ’র্ষ, সহিং’সতার মাঝেই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এসব কথা বললেন।

এই চুক্তি ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সং’ঘা’তের কোনও সমা’ধান কিংবা মধ্যপ্রাচ্যে কোনও ধরনের শান্তি আনবে না বলেও মন্তব্য করেছেন এরদোয়ান।

২০১৭ সালেও জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘোষণারও তী’ব্র স’মালো’চনা করেছিলেন তুরস্কের এই প্রেসিডেন্ট।

হোয়াইট হাউসে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুকে পাশে নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

‘শতাব্দির সেরা চুক্তি’ নামে পরিচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনাকে ‘নতুন বেলফোর ঘোষণা’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে তা প্রত্যা’খ্যান করেছেন ফিলিস্তিনিরা।

এই চুক্তির ঘোষণা দেয়ার পর ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস রামাল্লায় ফিলিস্তিনি নেতাদের জ’রু’রি বৈঠকে তলব করেন।

এই বৈঠকে পশ্চিম তীরের স’শ’স্ত্র গো’ষ্ঠী হামাসের প্রতিনিধিদেরও ডাকেন তিনি। হামাস ট্রাম্পের এই চুক্তির যেকোনও বাস্তবায়ন পুরোমাত্রায় প্রতিরো’ধের ঘোষণা দিয়েছে।