• আজ ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্কুল শিক্ষিকা ধর্ষণ: মহিলা পরিষদ নেত্রীর পদ স্থগিত

স্কুল শিক্ষিকা ধর্ষণ মহিলা পরিষদ নেত্রীর পদ স্থগিত

সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকাকে ধর্ষণ, মারধর করে জোরপূর্বক গর্ভের সন্তান অপসারণের চেষ্টার অভিযোগে স্বামী-সন্তানসহ এ্যাডভোকেট পারভীন আহমেদের নামে মামলা দায়ের পর তার বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকার পদটি স্থগিত করেছে সংগঠনটি।

কেন্দ্রীয় মহিলা পরিষদের নেতৃবৃন্দের নির্দেশে রবিবার রাতে সংগঠনটির জরুরী সভায় এ্যাডভোকেট পারভীন আহমেদকে বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকার পদ স্থগিত করা হয়েছে। একই সাথে বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সহ-সাধারণ সম্পাদিকা ফাতেমা আহমেদ পারুলকে সাধারণ সম্পাদিকা (ভারপ্রাপ্ত) করা হযেছে।

বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সভাপতি এ্যাডভোকেট সীতা রানী দেবনাথ এতথ্য নিশ্চিত নিশ্চিত করেছেন।

গত ৩০ আগস্ট সকালে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকা বাগেরহাট সদর থানায় তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ, মারধর করে জোরপূর্বক গর্ভের সন্তান অপসারণের চেষ্টার অভিযোগে বাগেরহাট শহরের রেলরোডস্থ রেদওয়ান আহমেদ রাতুল (২৯), রাতুলের বাবা ফারুক আহমেদ মনি (৫৮) এবং রাতুলের মা বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকা ও বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট পারভীন আহেমদের (৫০) নামে মামলা দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি প্রথমে গোপন রাখা হলেও পরে বিষয়টি নিয়ে শহরে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

জাতীয় পত্রিকা ও টেলিভিশনে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রচারের পর কেন্দ্রীয় মহিলা পরিষদের নেতৃবৃন্দের নির্দেশে রবিবার রাতে সংগঠনটির জরুরী সভায় এ্যাডভোকেট পারভীন আহমেদের বাগেরহাট মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকার পদ স্থগিত করা হয়।

বর্তমানে দেশব্যাপী আলোচিত এই মামলায় নারীনেত্রী পারভীন আহেমদ তার স্বামী-সন্তানসহ সবাই পলাতক রয়েছেন।

আরও পড়ুন

বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের দৈহিক নিরাপত্তা দেবে এসএসএফ

আনভীরের বাবা-মা-বউসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

এনআইডি ছাড়াই কেনা যাবে দুটি সিম

সন্তানের লেখাপড়ার খরচ চালাতে একটা ‘রিক্সা’ চান জয়নাল

বিশ্বকাপ থেকে সরে দাঁড়ালেন তামিম

আমি ভেঙে পড়ার মেয়ে না : পরীমণি

পিএন/এফএইচপি

,

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে