• আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দহগ্রাম সীমান্তে ভারতীয় ৪৭ মহিষ ও ৯ টি গরু আটক

| আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট ৬:৫৫ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১ সারাদেশ

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নে টাস্কফোর্সের মাধ্যমে অবৈধ ভাবে আনা ভারতীয় ২৩ টি মহিষ ও ৩ টি হরিয়ানা গরু আটক করা হয়েছে।

বৃস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে টাস্কফোর্সের এ অভিযান পরিচালিত হয়। পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুর রহমানের নের্তৃত্বে রংপুর ৫১ ব্যাটলিয়নের দহগ্রাম ও আঙ্গরপোতা ক্যাম্পের বিজিবি ও দহগ্রাম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ও আনসারদের সমন্বয়ে
গঠিত টাস্কফোর্স অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় সঙ্গে ছিলেন পাটগ্রাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল ইমরান, রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটলিয়নের পানবাড়ি কম্পানি কমান্ডার সুবেদার জাহাবুল ইসলাম, দহগ্রাম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নির্মল চন্দ্র মহন্ত ।

জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টাস্কফোর্সের অভিযানে উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নের মহিমপাড়া এলাকার আমিনুর রহমান ফতুর বাড়ির পিছনে ৬ টি ভারতীয় মহিষ ও মহিমপাড়া সংলগ্ন নদীর ঘাট থেকে ১৭ টি মহিষ ও ৩ টি ভারতীয় হরিয়ানা গরু আটক করা হয়। আটক গরু ও মহিষ গুলো দহগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন প্রধানের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইফুর রহমান বলেন, গরু, মহিষসহ অন্যান্য অবৈধ চোরাচালান প্রতিরোধ করতে টাস্কফোর্সের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আটক গরু গুলোর বিষয়ে বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নির্দেশে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টাস্কফোর্স অভিযানের পরে আবারো ওই ইউনিয়নে সকাল থেকে বেলা ৩ টা পর্যন্ত রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পানবাড়ি কম্পানি কমান্ডার সুবেদার জাহাবুল ইসলামের নেতৃত্বে দহগ্রাম ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা মহিমপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬ টি মহিষ ও ৪ টি গরু আটক করে এবং আঙ্গরপোতা ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা আঙ্গরপোতা জিরোপয়েন্ট এলাকায় ৮ টি মহিষ ও ২ টি গরু আটক করে।

পিএন/জেটএস


করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে