• আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সিরাজদিখানে পাওনা টাকা চাওয়ায় ভাবী, ননদকে মারধর

| নিউজ এডিটর ১২:২৮ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৭, ২০২১ মুন্সীগঞ্জ

স্টাফ রিপোর্টার,

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে পাওনা টাকা চাওয়ায় মুক্তা বেগম (২৫) ও মুন্নি আক্তার (২৪) নামে দুই নারীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা সম্পর্কে ননদ ও ভাবী। গত ১২ নভেম্বর বিকাল অনুমান ৩ টার দিকে উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের কাজীরবাগ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গত সোমবার সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাজীরবাগ গ্রামের গিয়াস উদ্দিন রিপনের স্ত্রী পারভীন বেগম (৫৫) একই গ্রামের মোঃ কামাল শেখের ছেলে মোঃ রাসেল শেখের কাছ থেকে কয়েক মাসের মধ্যে টাকা ফেরৎ দিবে মর্মে অঙ্গীকার করে অনুমান ১ বছর পূর্বে ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা ধার নেয়। টাকা ফেরৎ দেওয়ার সময় অতিক্রম হলে মোঃ রাসেল শেখ তার পাওনা টাকা ফেরৎ চাইতে গেলে পারভীন বেগম বিভিন্ন প্রকার টালবাহানা করে ঘুরাইতে থাকে।

গত ১২ নভেম্বর বিকাল অনুমান ৩ টার দিকে পুনরায় মোঃ রাসেল শেখ পারভীন বেগমের কাছে পাওনা টাকা চাইতে গেলে পারভীন বেগমসহ কাজীরবাগ গ্রামের মোয়াজ্জেম শেখের ছেলে মোঃ রবিন (৩১),গিয়াস উদ্দিন রিপনের ছেলে মোঃ রেজাউল করিম জয় (২২),কামাল শেখের ছেলে মোঃ বাবুল (৪৫) মোঃ রাসেল শেখের স্ত্রী মোছাঃ মুক্তা বেগমকে মারধর করে। মোছাঃ মুক্তা বেগমের ডাক চিৎকার শুনে ননদ মুন্নি আক্তার তাকে বাচাতে এগিয়ে গেলে তাকেও তারা মারধর করে।

পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাদের সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়।এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মোছাঃ মুক্তা বেগমের স্বামী বাদী হয়ে ৪ জনকে বিবাদী করে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ ব্যপারে অভিযুক্ত পারভীন বেগমের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে