• আজ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দুর্নীতি মুক্ত ইউনিয়ন পরিষদ গড়তে চান চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুল ইসলাম মিঠু

| নিউজ এডিটর ৭:০২ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৮, ২০২১ সাতক্ষীরা

স্টাফ রিপোর্টার

আসন্ন ২৩ ডিসেম্বর ৪র্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলছে প্রার্থীদের মধ্যে আনাগোনা। দলীয় মনোনয়নকে ঘিরে তৃণমূলের কর্মী সমার্থকদের মধ্যে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে।

তালা উপজেলার কুমিরা ইউপি নির্বচনে বর্তমান চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম মিঠুর নাম শোনা যাচ্ছে।

দলীয় মনোনয়ন পেতে ইতিমধ্যে প্রার্থীরা জেলা উপজেলা থেকে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে। এবার কুমির ইউপি নির্বাচনে তৃণমূলের জনপ্রিয়তার শীর্ষ অবস্থানে থাকা নাজমুল ইসলাম মিঠুর নাম শোনা যাচ্ছে।

নাজমুল ইসলাম মিঠু ১৯৯১ সালের ২রা মে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৬ সালে জাতির জনক বঙ্গ বন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রলীগের হাত ধরে তার রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন।

২০১৩ সালে যুবলীগে থাকা কালীন জামাত শিবিরের হাতে হামলার শিকার হয়েও থেমে নেয় তার রাজনৈতিক জীবন। বর্তমানে তিনি সুনামের সহিত ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

করনা কালিন সময়ে সমাজের অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে নগদ অর্থ, খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এলাকা দরিদ্র কৃষক শ্রমিকের বিভিন্ন দাবি দাবা আদায়ে দীর্ঘ দিন ধরে আন্দোলন সংগ্রামে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছেন। এছাড়া নিয়মিত তাকে এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থাকতে দেখা যায়।

এক সাক্ষাত কারে নাজমুল ইসলাম মিঠু জানান, বর্তমানে এলাকার হতদরিদ্র ভূমিহীন মানুষ আশ্রয় প্রকল্পের ঘর সরকারি ত্রাণ সুবিধা থেকে বঞ্চিত।

তাছাড়া দেশনেত্রী শেখ হাসিনার গ্রামকে শহর করার যে অঙ্গিকার ছিলো তা বাস্তবায়িত হয়নি। এবং সরকার প্রদত্ত বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা অসাধু ভাবে নগদ অর্থের বিনিময়ে বিলি বন্টন হয়েছে।

এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদে গেলে দেখা যায় এলাকার মানুষরা নানা ভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে। আমি দীর্ঘ দিন যাবত এসকল সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে যতটুকু সম্ভব থেকেছি এবং ভবিষতেও থাকবো। জন নেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি সমাজের সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে থেকে দুর্নীতি মুক্ত একটি ইউনিয়ন পরিশোধ গড়বো।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে