• আজ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আবারো কি সহিংস রাজনীতিতে ফিরছে বিএনপি?

| নিউজ এডিটর ১২:০০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২৩, ২০২১ বিএনপি

দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে কয়েকদিন ধরে নানা কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি। কিন্তু এসব কর্মসূচিতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দাবি জানানোর চেয়ে রাজপথ অবরোধ, গাড়ি ভাঙচুর ও পুলিশের ওপর হামলার দিকেই বিএনপি কর্মীদের বেশি মনোযোগ লক্ষ্য করা গেছে।
এসব কারণে সাধারণ জনগণের পাশাপাশি রাজনৈতিক মহলেও প্রশ্ন উঠেছে, খালেদার চিকিৎসার দোহাই দিয়ে আবারো কি সহিংসতার পথে ফিরছে বিএনপি?

জানা গেছে, বয়সের কারণে নানাবিধ শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। মানবিক দিক বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে বাসায় থেকে চিকিৎসার সুযোগ দিয়েছে সরকার। প্রয়োজনে খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর সুযোগও দেওয়া হচ্ছে।

আইনবিদদের মতে, দেশের প্রচলিত আইনে সাজাপ্রাপ্ত একজন আসামিকে সর্বোচ্চ সুবিধা দিচ্ছে সরকার। এদিকে দেশের নামকরা চিকিৎসকরাও জানিয়েছেন, দেশের ভেতরেই খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার সব ধরনের সুযোগ রয়েছে। এর আগেও দেশেই তার সুচিকিৎসা হয়েছে, ফলে করোনার মত জটিল রোগ থেকে সেরে উঠেন তিনি। কিন্তু তারপরও কোনো এক অদৃশ্য কারণে খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর নাম করে রাজপথে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করছে বিএনপি।

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে শনিবার দেশব্যাপী গণ-অনশন কর্মসূচি পালন করে বিএনপি। এদিন রাজধানীতে সড়ক দখল করে ব্যাপক গণদুর্ভোগ সৃষ্টি করে। এরপর রোববার রাতে হঠাৎ করেই রাজধানীর কাকরাইল মোড় থেকে প্রজ্বলিত মশাল হাতে রাস্তায় নামেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল মিছিলে নেতৃত্ব দেন।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি যদি না দেওয়া হয়, তাহলে আজ যে আগুন মশালে জ্বলছে, সেই আগুন সারাদেশে ছড়িয়ে পড়বে।

আর তার এই বক্তব্যের পরই গতকাল সোমবার খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে সমাবেশের নামে সারাদেশে সহিংসতা চালিয়েছে বিএনপির নেতাকর্মীরা।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর থেকে জানা গেছে, নাটোরে পুলিশের ওপর ব্যাপক হামলা চালিয়েছে বিএনপির নেতা-কর্মীরা। তাদের ছোড়া ইটের আঘাতে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুর রহমানসহ অন্তত তিন পুলিশ আহত হয়েছেন। মাথায় আঘাত পাওয়া ওসি মনসুরকে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিএনপির কর্মীদের হাত থেকে এমনকি সাংবাদিকরাও রক্ষা পাননি। এছাড়া খুলনা, বাগেরহাট ও নরসিংদীতেও পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে বিএনপির কর্মীরা।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, এসবের মধ্য দিয়ে আবারো সহিংস রাজনীতিরই চর্চা করছে বিএনপি। খালেদা জিয়ার চিকিৎসা তাদের মূল বিষয় নয়। চিকিৎসার দোহাই দিয়ে নানা অযৌক্তিক ইস্যু বানিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করাই বর্তমানে বিএনপির প্রধান লক্ষ্য বলে মনে হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে