• আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কন্যা সন্তান বোঝা নয়, আশীর্বাদ”- পুলিশ সুপার

| তারিকুর রহমান, চুয়াডাংগা সংবাদদাতা ৮:৩১ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৩, ২০২১ দেশজুড়ে
-ছবি: সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সদ্য ভূমিষ্ঠ দশ (১০)টি কন্যা শিশুর পরিবারকে পাঠানো হলো ফুল ও নতুন পোশাক

“মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার” এই স্লোগানকে সামনে রেখে মুজিববর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে চুয়াডাঙ্গা জেলার পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন প্রকার সামাজিক, মানবিক ও উৎসাহমূলক গণমুখী কার্যক্রমে ভূমিকা রেখে চলেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় নারীর ক্ষমতায়ন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ এবং লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণে পুলিশ সুপার চুয়াডাঙ্গা এক ব্যতিক্রমধর্মী পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের ফেসবুক পেজে “কন্যা সন্তান জন্ম হলে ফোন করুন, উপহার পৌঁছে যাবে সাথে সাথে” শিরোনামে একটি পোষ্ট দেওয়া হয়। এটি নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে জেলা পুলিশের একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ।

আরও পড়ুন:মেরে ফেলার হুমকিতে ভয় দেখিয়ে কী হবে, আমি ভয় পাই না’

গত ১২.০১.২০২১ তারিখ দুপুর অনুমান ১৪.১০ ঘটিকার সময় সাং-কুষাডাঙ্গা থানা ও জেলা- চুয়াডাঙ্গা (১) মোঃ সুজন আলী ও মোছাঃ তাসলিমা খাতুন, দম্পতির পরিবার জানায় গত ০৮.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ সকাল ০৫.৩০ ঘটিকার সময় নিজ বাড়ীতে তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। সদ্য ভুমিষ্ট কন্যা সন্তানের স্বজনরা পুলিশ কন্ট্রোল রুমে তাদের বাচ্চা ভুমিষ্ট হওয়ার সু-সংবাদ জানানোর সাথে সাথে পুলিশ সুপার চুয়াডাঙ্গার নির্দেশে কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঐ শিশুর জন্য (ক) নিউবর্ণ বেবী প্যাকেজ, (খ) পোশাক, (গ) ফুলের তোড়া নিয়ে তাদের বাসায় উপস্থিত হয়। কন্যা শিশুর পরিবারের লোকজন বিষয়টি দেখে আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে যায়। এছাড়াও (২) মোঃ তৌহিদ ও মোছাঃ আখি খাতুন সাং-মুসলিম পাড়া, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার একই দিনে রাত অনুমান ২২.০০ ঘটিকার সময় মোবাইল ফোনে জানায় গত ০৮.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ রাত ২১.০০ ঘটিকার সময় দেশ ক্লিনিক, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান জন্ম নিয়েছে।

পুলিশ কন্ট্রোলরুমের মাধ্যমে এই সু-সংবাদ শোনা মাত্রই পুলিশ সুপারের নির্দেশে কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঔ সদ্য ভূমিষ্ঠ কন্যা সন্তানের জন্য ১) নিউবর্ণ বেবী প্যাকেজ, ২) পোশাক, ৩) ফুলের তোড়া নিয়ে তাদের বাসায় উপস্থিত হয়। কন্যা শিশুর পরিবারের লোকজন বিষয়টি দেখে আনন্দে হতবাক হয়ে যায়। এমনি ভাবে পর্যায়ক্রমে পুলিশ কন্ট্রোলরুমের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে (৩) মোঃ মাহিম ও কাঞ্চন বেগম দম্পতির পরিবার জানায় গত ১০.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ রাত ৩.০০ ঘটিকার সময় নিজ বাড়ী সাং-সুমিরদিয়া, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। (৪) মোঃ আরিফ হাসান ও সোনিয়া খাতুন, সাং-কাথলী, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১০.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ দুপুর ১৩.৩০ ঘটিকার সময় আখি তারা ক্লিনিক, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে।

আরও পড়ুন: চোর অপবাদে নারীকে বেঁধে নির্যাতন, দুধপান করতে দেয়নি শিশুকেও!

(৫) মোঃ ইউছুফ আলী ও অন্তরা খাতুন,সাং-বুড়োপাড়া, থানা ও জেলা- চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১০.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ সকাল ০৮.৩০ ঘটিকার সময় জিন্নারা ক্লিনিক, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। (৬) আতিয়ার রহমান ও জান্নাতুল ফেরদৌস, সাং-চন্ডিপুর, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১০.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ সন্ধা ১৯.০০ ঘটিকার সময় সরোজগঞ্জ হাসপাতাল, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। (৭) মোঃ মোশারফ হোসেন ও মোছাঃ সাবরিনা সুলতানা, সাং-ওয়াবদা রোড, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১১.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ ভোর ০৫.২০ ঘটিকার সময় উপশম নার্সিং হোম, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে।

(৮) মোঃ বিপুল ও মোছাঃ ময়না, সাং-ভান্ডারদাহ, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১১.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ দুপুর ১৩.০০ ঘটিকার সময় সরোজগঞ্জ হাসপাতাল, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। (৯) মোঃ আবু রাসেল ও মোছাঃ ফারজানা ইসলাম, সাং-কেদারগঞ্জ পাড়া, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১১.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ সকাল ১২.১০ ঘটিকার সময় রাজধানী ক্লিনিক, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে।

(১০) মোঃ মাসুদ রানা ও মোছাঃ নাজমা ইয়াসমিন, সাং-বোয়ালিয়া, থানা ও জেলা-চুয়াডাঙ্গা দম্পতির পরিবার জানায় গত ১১.০১.২০২১ খ্রি. তারিখ বিকাল ১৬.০০ ঘটিকার সময় নারদিতা ক্লিনিক, চুয়াডাঙ্গায় তাদের একটি কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে। সংবাদ জানানোর সাথে সাথে পুলিশ সুপার চুয়াডাঙ্গার নির্দেশে কয়েকজন পুলিশ সদস্যসহ সকল পরিবারের কাছে উপহার সামগ্রী নিয়ে তাদের বাসায় উপস্থিত হন।

আরও পড়ুন: এবার প্রকাশ্যে সিল মারার নির্দেশ আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর, ভিডিও ফাঁস!

পুলিশের এই ব্যতিক্রমী কর্মকান্ডের প্রশংসা এখন স্থানীয় জনসাধারণের মুখে মুখে। কন্যা সন্তান জন্ম নেওয়ার কারনে সংসারে কলহ সৃষ্টি ও পারিবারিক অসন্তোষ দেখা যায়। পুলিশ সুপারের এই মহতী উদ্যোগ হতে পারে সমাজের ঐ সকল পরিবারের জন্য ইতিবাচক বার্তা।

পুলিশ সুপার চুয়াডাঙ্গা বলেন, দেশের মোট জনগোষ্ঠির অর্ধেক নারী। এই বিপুল সংখ্যাক নারী পিছিয়ে থাকলে সামগ্রিক উন্নয়ন অসম্ভব। তিনি চুয়াডাঙ্গার সর্বস্তরের জনসাধারণের কাছে আইন শৃংঙ্খলা রক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, নারী ও শিশু নির্যতান প্রতিরোধ এবং লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরনে সহযোগিতা কামনা করেন।

পিএন/এএমএস

,

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - feature.peoples@gmail.com