• আজ ৩১শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
পিপলস শিরোনাম
 অবশেষে নিখোঁজ সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার, বেঁচে নেই ৫৩ নাবিক | তালিকা পাঠান, নিজেরাই জেলে যাব: হেফাজতে আমির | প্রকৌশলী রাসেল সড়ক দুর্ঘটনায় নি’হ’ত,প্রাক্তন ছাত্র সমিতির শোক। | হাটহাজারীতে হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের নিয়ে জরুরি বৈঠক | মোদিবিরোধী বিক্ষোভ তামিলনাড়ুতে, আটক ৬০ | ভাড়া দ্বিগুণ, অধিকাংশ গণপরিবহনই সামাজিক দূরত্ব মানছে না | স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীকে কলঙ্কিত করতে হেফাজতের নাশকতা : বেনজীর | রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা | নির্বাচন ও আন্দোলনে ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতাদের ‘টপ টু বটম’ পদত্যাগ করা উচিত : কাদের | বাংলাদেশের মানবাধিকারের বিভিন্ন ইস্যুতে কড়া সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র |

নায়িকারা হেরে যাওয়ায় ‘নটী’ বললেন বিজেপি নেতা, নুসরাতের প্রতিবাদ

| নিউজ রুম এডিটর ৭:৩১ অপরাহ্ণ | মে ৪, ২০২১ আন্তর্জাতিক, ভারত

সদ্য শেষ হওয়া পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার নির্বাচনের রেশ কাটছেই না। বিজেপি যেন মানতেই পারছে না তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে আবারও রাজ্য হারাবে তারা। জয় পেতে কি না করেছিল গেরুয়া শিবির৷

দলে এনেছিল তারকা সব প্রার্থী। প্রচারণা চলেছিল কাড়ি কাড়ি টাকা খরচ করে। কিছুতেই কিছু হলো না। ভরাডুবি হলো ভোটের বাক্সে। হেরে বসেছেন শ্রাবন্তী, পায়েল, রুদ্রনীলের মতো তারকারা।

তারকাদের এই পরাজয় মেনে নিতে পারছেন না বিজেপির অনেক নেতাকর্মী। বিশেষ করে টলিউডের অভিনেত্রী বিজেপি তারকা প্রার্থী তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকার এবং শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কে টিকিট দেওয়া নিয়ে অনেক সমালোচনা চলছে। এদিকে এই নায়িকাদের ‘নগরের নটী’ বলে সম্বোধন করেছেন বিজেপি নেতা তথাগত রায়। টুইটারে এক স্ট্যাটাসে তিনি এ কথা লেখেন।

মেঘালয়ের রাজ্যপালে তথাগত তার টুইটে লিখেছেন, ‘পায়েল শ্রাবন্তী পর্নো ইত্যাদি ‘নগরীর নটীরা’ নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেরিয়েছেন আর মদন মিত্রের সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন (এবং হেরে ভূত হয়েছেন) তাদের টিকিট দিয়েছিল কে? কেনই বা দিয়েছিল? দিলীপ-কৈলাশ-শিবপ্রকাশ-অরবিন্দ প্রভুরা একটু আলোকপাত করবেন কি?’

সেই টুইটের বিরুদ্ধে কড়া জবাব দিলেন অভিনেত্রী সাংসদ নুসরাত জাহান। এই প্রসঙ্গে তনুশ্রী, পায়েল এবং শ্রাবন্তী কোনো প্রতিক্রিয়া দিতে রাজি না হলেও এগিয়ে এলেন নুসরাত। তিনি বলেন, ‘আমি বরাবরই বলে এসেছি বিজেপি নারীর প্রধান শত্রু। এই দল কখনোই নারীকে সম্মান করতে পারেনি, পারবেও না। মেয়েদের ওরা এ ভাবেই দেখে। তাদের যে সম্মান করা উচিত, সেই শিক্ষাটাই ওদের মধ্যে নেই। সেই জন্যই যোগী আদিত্যনাথ পশ্চিমবঙ্গে রোমিও স্কোয়াডের কথা বলতে পেরেছিলেন।’

এই বিজেপিকেই সমূলে উৎখাত করতে ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে প্রচারে গেছেন নুসরাত। প্রার্থী না হয়েও চষে বেরিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা। নুসরাত এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘বাংলার মানুষ জানে বিজেপি কেমন। নির্বাচনের ফলই তার প্রমাণ। তবে বাংলার নারীরা বিজেপিকে ব্যালট বাক্সে যা জবাব দেওয়ার দিয়েছে। বিজেপিতে যোগ দিয়ে নিজেকে লজ্জিত করার কোনো মানেই হয় না।’

গত জানুয়ারি মাসে বিজেপির বিরুদ্ধে এক প্রতিবাদ সভায় মেয়েদের প্রতি অন্যায় আচরণের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিলেন নুসরাত। কড়া ভাষায় জানিয়েছিলেন, বাংলার মেয়েদের ভয় দেখিয়ে দমন করা সম্ভব নয়। এর পরও একাধিকবার একই সুর শোনা গেছে তার গলায়। প্রচারেও বারবার নারীদের প্রতি বিজেপির আচরণকে তিরস্কার করেছেন তিনি।

এর আগেও তথাগত নারীদের নিয়ে কটূক্তি করে তুমুল সমালোচনার শিকার হন। তার বিরুদ্ধে পশ্চিমঙ্গের বিভিন্ন এলাকার নারীরা আন্দোলনেও নেমেছিলেন।

পিএন/জেটএস


করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - feature.peoples@gmail.com