ঢাকা, ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সুবিদখালী বাজার সড়কের বেহাল দশা, দুর্ভোগ চরমে!

প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৩, ২০২০ ২:৪৬ অপরাহ্ণ  

| আবদুর রহিম সজল, মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী)

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার সুবিদখালী বাজার সড়কটি বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে। সড়ক নির্মান না হওয়ায় বৃষ্টির পানি আটকে পড়ায় মানুষ চলাচল তো দূরের কথা রিক্সা ও মটরসাইকেল চলতে কষ্ট হচ্ছে। সড়কের উপজেলার মধ্যে সুবিদিখালী বাজার হচ্ছে প্রানকেন্দ্র বা বানিজ্যিক কেন্দ্র। সামান্য বৃষ্টি হলেই চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে বাজারে বসবাসরত বাসিন্দাসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগতরা।

গতবছর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকী তাঁর চেষ্টায় মহাসড়কের তিনরাস্তা নামক স্থান থেকে পদ্মা ব্যাংক পর্যন্ত সড়কটি নির্মান করা হয়। তখন বৃষ্টির কারনে পুরো সড়কটি কাজ করা সম্ভব হয়নি বলে জানা যায়। বাকী আধাকিলোমিটার সড়কের কাজ না হওয়ায় বৃষ্টির পানি জমে পুকুরের মতো সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার সুবিদখালী পদ্মা ব্যাংকের সামনে থেকে সুবিদখালী বাজার মসজিদ পর্যন্ত আধা কিলোমিটার সড়কের বেহাল অবস্থা। সড়কের বিভিন্ন স্থানে সিসি ঢালাই উঠে খানা খন্দসহ ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে যানবাহন তো দুরের কথা লোকজনের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে এ সড়ক দিয়ে। সড়কের কোন কোন স্থানে গর্তের সৃষ্টি হওয়াতে হাটু সমান পানিও জমে থাকে। ফলে পথচারী কিংবা যে কোন যানবাহন ড্রাইভারদের দেখে উপায় নেই এখানে বড় বড় গর্তে ডুবে আছে পানিতে। বৃষ্টি হলেই এ সড়কে রিক্সার ড্রাইভাররা সহজে যেতে চান না। এসব সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে প্রায়ই রিক্সা, অটোরিক্সা, মোটরসাইকেল, টেম্পু, টমটমসহ বিভিন্ন যানবাহন আটকে পড়ায় যান চলাচলে বিঘœ ঘটছে। প্রায়ই গাড়ি উল্টে গিয়ে ঘটছে নানা ধরনের দুর্ঘটনা। তবে সড়কে খানাখন্দের কারনে পথচারীদের যেমন সময়ের অপচয় হচ্ছে, তেমনি দূর্ঘটনারও ঝুঁকি রয়েছে।

পথচারীরা বলেন, সড়কের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য ছোটবড় খানাখন্দক ও গর্ত। এসব স্থানে বৃষ্টির পানি জমে যানবাহনসহ মানুষ চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে সুবিদখালী বাজারে ঢুকতে চলাচলে বিঘœ সৃষ্টির পাশাপাশি পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মো. আবুবকর সিদ্দিকী বলেন, সুবিদখালী বাজার সড়কের কাজ গত বছর করা হয়েছে। ড্রেনেস ব্যবস্থা না থাকায় সড়কে পানি জমে থাকে। এ বছরই সড়কের পাশে ড্রেন নির্মানের পরই বাকী অংশ সড়কের কাজ শুরু করা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী শেখ আজিম উর রশীদ বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান স্যারের সাথে আলাপ হয়েছে এ সড়কটি নিয়ে। মির্জাগঞ্জ উপজেলার সুবিদখালী বাজার সড়কের যেটুকু কাজ বাকী আছে এ বছর এডিপির মাধ্যমে শেষ করা হবে।

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস ও মতামত কলামে লিখতে পারেন আপনিও – Peoplesnews24.com@gmail.com ইমেইল করুন  

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ