• আজ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শরীয়তপুরের নড়িয়ায় কিশোর গ্যাং’র ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র নিহত

| নিউজ রুম এডিটর ৫:২৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ৩, ২০২২ সারাদেশ

আজানের সময় মোবাইলের গান বন্ধ করতে বলায় ছুরিকাঘাত করে স্কুল ছাত্রকে হত্যা করেছে কিশোর গ্যাং বাহীনি ! এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুজন। মঙ্গলবার ২আগস্ট রাত ৮:৩০টায় নড়িয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্য লোংসিং মাদবর বাজার এলাকায় শাহলম ছৈয়ালের পুকুর পারে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সিজান আকন(১৬)ওই এলাকার বিল্লাল আকনের ছেলে। সে নড়িয়া বিহারী লাল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাশাপাশি এলাকার লালমিয়া ছৈয়ালের ছেলে লাবিব ছৈয়াল (২২),সমেদ হাওলাদারের ছেলে রহিম হাওলাদার(২২),জহির বেপারির ছেলে ঈব্রাহীম জয়(২২),জালাল বেপারির ছেলে নাইম বেপারী(১৮) ও মালেক ছৈয়ালের ছেলে জুবায়ের ছৈয়াল (১৯)মোবাইলে ফুল সাউন্ড দিয়ে গান সুনছিল,তখন এশার নামাজের আজান দিলে একটু দুরে বসে থাকা সিজান আকন লাবিব ছৈয়ালকে বলে “গান বন্ধ কর” এই তুই বলার কারনে জুনিওর সিনিওর নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়, একপর্যায় ক্ষিপ্ত হয়ে লাবিব ছৈয়াল সিজান আকনকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এসময় উদ্ধার করতে এসে সিজানের বন্ধু মুন্না ছৈয়াল ও আসিফ ব্যাপারী আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিজান আকনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মারাক্তক ভাবে আহত মুন্নাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা প্রেরন করা হয়। এ ঘটনায় রাতেই ইব্রাহিম জয় ও রহিম হাওলাদারকে আটক করেছে নড়িয়া থানা পুলিশ।

নিহত সিজানের চাচা ও পতিবেশি কালাচান আকন,মোখলেসুর রহমান,আব্দুর সাত্তার বলেন-লাবিব ছৈয়াল, ইব্রাহিম জয়, রহিম হাওলাদার, নাইম ছৈয়াল ও জুবায়ের ছৈয়াল মিলে সিজান আকনকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে। আমরা হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম বলেন, ঘটনার পর দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৫ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমরা বাকি আসামীদের ধরার চেস্টা চালাচ্ছি ৷

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে