• আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চর ইসলামপুরে মেম্বারের নেতৃত্বে স্বামী-স্ত্রী’কে কুপিয়ে জখম ॥ থানায় অভিযোগ

| নিউজ রুম এডিটর ১০:০৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৫, ২০২২ সারাদেশ

নিজস্ব সংবাদাতা: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে স্বর্ণের চেইন ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে স্থানীয় ইউপি মেম্বার ও তার লোকজন। ২৫ এপ্রিল সোমবার সকালে
উপজেলার মুসাপুর ইউনিয়নের চর ইসলামপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আহতরা হচ্ছেন মোঃ আসাবুদ্দিন(৫৫) ও তার স্ত্রী পারভীন বেগম(৪০)। আহতদের মধ্যে আসাবুদ্দিন মিয়াকে গুরুতর অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আহত আসাবুদ্দিন বাদী হয়ে সোমবার দুপুরে ইউপি মেম্বার মাহাবুবসহ ৮জনকে আসামী করে বন্দর থানায় একটি লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, চর ইসলামপুর গ্রামের মৃত সোহরাব আলী প্রধানের ছেলে আসাবুদ্দিন মিয়ার সঙ্গে স্থানীয় ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মাহাবুব মেম্বার গংয়ের দীর্ঘ দিন ধরে রাস্তা নির্মাণ সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। সোমবার সকালে আসাবুদ্দিন তার নিজ জমিতে ঘর নির্মাণকালে মাহাবুব মেম্বারের নির্দেশে তারই চাচাতো ভাই নুরুল আমিন মিয়ার ৩ ছেলে যথাক্রমে এনায়েতউল্লাহ,হাবিবুল্লাহ ও আমানউল্লাহ এবং একই এলাকার রহমউদ্দিনের ছেলে খোরশেদ ও সলু প্রধানের ছেলে আবুল কাশেম ওরফে কাশু মৃত লতিফ মাষ্টারের
ছেলে ইয়ানবী সংঘবদ্ধ হয়ে আসাবুদ্দিনের ঘর নির্মাণ কাজে বাধা দেয়।

এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে তর্কাতর্কি থেকে হাতাহাতিতে রূপ নিলে এক পর্যায়ে মাহাবুব মেম্বারের নির্দেশ ১নং বিবাদী এনায়েতউল্লাহ তার হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আসাবুদ্দিনের মাথায় কোপ দিলে আসাবুদ্দিন রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধারে স্ত্রী পারভীন বেগম এগিয়ে এলে হামলাকারীরা তাকেও বেদম মারধর করে তার গলায় থাকা ১ভরি ওজনের একটি স্বার্ণের চেইন ও হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। পরে আহতদের ডাক চিৎকারে আশ পাশের লোকজন ছুটে হলে হামলাকারীরা দ্রুত সটকে পড়ে।