• আজ ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইমরান খানের ওপর গুলির কারণ জানাল হামলাকারী

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গুলির ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া সন্দেহভাজন ব্যক্তির স্বীকারোক্তির একটি ভিডিও বক্তব্য প্রকাশ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদ শহরে ইমরানকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ার অল্প সময়ের মধ্যেই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের পর পাকিস্তান পুলিশের কাছে দেওয়া এক ভিডিও বিবৃতিতে হামলাকারী বলেছেন, তাকে লোকজন ভুল বুঝিয়েছিল। যে কারণে তিনি ইমরান খানকে হত্যার চেষ্টা করেছেন।

বক্তব্যে সন্দেহভাজন জানায়, ইমরান খান লাহোর ছেড়ে যাওয়ার পর হত্যা চেষ্টার পরিকল্পনা করে আসছে সে।

হত্যার চেষ্টা ও হামলার স্বীকারোক্তিমূলক বক্তব্যে সন্দেহভাজন ব্যক্তি বলেছে, ইমরান জনগণকে বিভ্রান্ত করছিলেন। আমি এটি মেনে নিতে পারছিলাম না। তাই আমি তাকে হত্যার চেষ্টা করি।

হামলাকারী এই যুবক বলেন, ইমরান খান লাহোর ছেড়ে যাওয়ার পর থেকে হত্যার পরিকল্পনা করছিলেন তিনি। তবে এই হামলায় তার কোনও সহযোগী আছে কিনা জানতে চাইলে মাথা নাড়িয়ে নেতিবাচক জবাব দেন হামলাকারী। বলেন, আমার সাথে আর কেউ ছিল না। আমি একাই ছিলাম।

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে পাঞ্জাব প্রদেশের ওয়াজিরাবাদে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

পিটিআইয়ের নেতা আসাদ ওমর বলেছেন, এক ব্যক্তি স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র থেকে গুলি ছুড়েছেন। কয়েকজন আহত হয়েছেন। ইমরান খানও আহত হয়েছেন। তাকে বর্তমানে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তবে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী আশঙ্কামুক্ত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

হামলার পরে একাধিক ভিডিও পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোয় প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, পায়ে ব্যান্ডেজ বাঁধা ইমরান খানকে কন্টেইনার থেকে একটি গাড়ির দিকে নিয়ে যাচ্ছেন তার নিরাপত্তারক্ষীরা।

নির্বাচনের দাবিতে দেশজুড়ে লংমার্চ পালনের অংশ হিসেবে বুধবার ওয়াজিরাবাদে সমাবেশ করছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সেখানেই অজ্ঞাত বন্দুকধারীর হামলার মুখে পড়েন তিনি।