• আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নওগাঁয় কবর স্থানের জমি দখল করতে নানাভাবে হুমুকি ধামকি ও মারপিটের অভিযোগ

| নিউজ রুম এডিটর ৬:৩৩ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ নওগাঁ, সারাদেশ

কামাল উদ্দিন টগর,নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ নওগাঁয় কবর স্থানের জমি দখল করতে নানাভাবে হুমুকি ধামকি দিয়ে আসছিল সদর উপজেলার উল্লাসপুর গ্রামের মোছা. রাশেদা বেগম ও তার পরিবারকে। এর একপর্যায় গত (১৯ ফেব্রুয়ারি) শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ করে একই গ্রামের মো. আলমগীর হোসেন তার ছেলে সজীব হোসেন সহ আলমগীর হোসেনর স্ত্রী শিরিন। রাশেদার বাড়ির উত্তর পাশে চলাচলের রাস্তায় বাঁশের বেড়া দিয়ে ওই পরিবারের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেয়। রাশেদা বেগমের ছেলে শরিফুল ইসলাম ও তার স্ত্রী অনিকা আক্তার সকালে বাসা থেকে বের হলে আলমগীর হোসেন তার ছেলে সজীব হোসেন গালাগালির একপর্যায়ে লাঠি দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করতে শুরু করে। রাশেদা বেগম সহ পরিবারের সদস্য গণ রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে তাদের এলোপাথাড়ি মারপিট শুরু করে। এলাকাবাসী তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠায়।

ভুক্তভোগী মোছা. রাশেদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, প্রভাবশালী আলমগীর হোসেন দীর্ঘদিন তার পরিবারের উপর বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে আসছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলাও হয়েছে। মামলার পর তারা আরো বেপারোয় হয়ে পড়েছে। মামলা তুলে নিতে এখন হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে। মামলা তুলে নিতে না চাওয়ায় তারা শনিবার বাড়ির পাশে চলাচলের রাস্তায় বাঁশের বেড়া দিয়েছে এবং মারপিট করছে বাড়ি থেকে বের হতে দিচ্ছেনা।

একই গ্রামের খাদেম হোসেন বলেন, তারা কোন কিছুকেই তোয়াক্কা করে না। আলমগীর হোসেনের অত্যাচারে গ্রামের সাধারণ মানুষ চরম ভাবে অতিষ্ঠ। শুধু তাই নয় তারা পারিবারিক কবরস্থানের জমি জোর করে দখল করে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

তবে অভিযুক্ত মো. আলমগীর হোসেন এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি নয় বলে জানান।

এ ব্যাপারে নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এই বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।