• আজ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

সঠিক অভিভাবকত্বের ধরণ ব্যক্তিকে মাদকনির্ভরশীলতার সমস্যা থেকে দুরে রাখতে সহায়তা করে

| নিউজ রুম এডিটর ৬:১৩ অপরাহ্ণ | মার্চ ৩১, ২০২২ ফিচার

একজন মানুষের জন্ম থেকে প্রাপ্তবয়স্ক সময় পর্যন্ত অভিভাবকত্বের ধরণের ভূমিকা অনেক গুরুত্বপূর্ন। অভিভাবকত্বের ধরণ একজন মানুষের সবল মানসিক স্বাস্থ্যের অধিকারী হতে সহায়তা করে। মাদকনির্ভরশীল ও মানসিক রোগ কে পারিবারিক রোগও বলা হয়। কারণ এই ধরণের সমস্যাগ্রস্থ রোগে আক্রান্ত রোগীদের পরিবারের সদস্যগন চিকিৎসা পুর্ববর্তী সময়ে রোগীদের সমস্যার সমাধানে করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহনে দ্বিধাদ্বন্দে ভোগেন ও রোগীর জন্য সঠিক সহযোগিতার সিদ্ধান্ত না নিতে পারলে, পরিবারের সদস্যরাও অসহায় ও হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েন। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মাদকনির্ভরশীল ব্যক্তির সমস্যার কারণ পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, মাদকনির্ভরশীল হওয়ার পেছনে যে সকল আচরণগুলো সহায়ক থাকে, এই সমস্যা শিশুকালে বেড়ে ওঠার সময় থেকেই শুরু হয়েছে।

এই বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দিয়ে আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসারত রোগীদের পরিবারের সদস্যদের জন্য মনোসামাজিক শিক্ষামূলক কর্মসূচি নিয়মিত আয়োজন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার ৩১ মার্চ ২০২২ উক্ত কেন্দ্রে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের পরিবারের সদস্যদের অংশগ্রহনে পারিবারিক মনোসামাজিক শিক্ষামূলক গ্রুপ সেশন আয়োজন করা হয়।

এবারের গ্রুপ সেশনের আলোচ্য বিষয় ছিলো “অভিভাবকত্বের ধরণ’’। সেশনের শুরুতে “মাইন্ডফুলনেস এক্সসাইজ” পরিচালনা করেন কাউন্সেলর জান্নাতুল ফেরদৌস। এরপরে মূল আলোচ্য বিষয়ে আলোচনা করেন সাইকোসোশ্যাল কাউন্সেলর মমতাজ খাতুন। এরপরে অভিভাবকত্বের বিভিন্ন ধরণ নিয়ে রোল প্লেলে করা হয়। রোল প্লেতে কাউন্সেলর জান্নাতুল ফেরদৌস ও কেস ম্যানেজার রোজিনা খাতুন অংশগ্রহন করেন। উক্ত গ্রুপ সেশন প্রোগ্রাম পরিচালনায় আলোচক ছিলেন স্বাস্থ্য সেক্টরের সিনিয়র সাইকোলজিস্ট রাখি গাঙ্গুলি।

পরবর্তীতে মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়। গ্রুপ সেশন প্রোগ্রামটি পরিচালনা করেন সাইকোসোশ্যাল কাউন্সেলর মমতাজ খাতুন ও কাউন্সেলর জান্নাতুল ফেরদৌস। এছাড়াও সহযোগীতায় ছিলেন সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার উম্মে জান্নাত ও কেস ম্যানেজার রোজিনা খাতুন। উক্ত প্রোগ্রামে ১৬ জন রোগীর পরিবার থেকে ৩১ জন সদস্য অংশগ্রহন করেন। উল্লেখ্য আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রে বিজ্ঞানসম্মত ও সমন্বিত চিকিৎসা ব্যবস্থায় অধীনে একজন রোগীকে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। এবং উক্ত কেন্দ্রে রোগীদের চিকিৎসায় অন্যান্য সকল কার্যক্রমের সাথে মনোসামাজিক শিক্ষামূলক সেশন ও কাউন্সেলিং এর প্রতি বিশেষভাবে গুরুত্ব প্রদান করা হয়।