• আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৈঠকে আ.লীগের কার্যনির্বাহী সংসদ

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় এ সভা শুরু হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করছেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। করোনা টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট আসা দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্যরা এতে অংশ নিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব আশরাফ সিদ্দিক বিটু গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সভার শুরুতেই কেন্দ্রীয় নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে তার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।’

আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের আজকের সভায় দলের জাতীয় সম্মেলনসহ একাধিক সিদ্ধান্ত হতে পারে। সাড়ে পাঁচ মাস পর এ সভার মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা সবাই দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পেয়েছেন।

সর্বশেষ গত বছর ১৯ নভেম্বর গণভবনে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। বহিষ্কারের পর গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়রের পদটিও হারান জাহাঙ্গীর আলম। ওই সভাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হওয়া সত্ত্বেও করোনাভাইরাসের কারণে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সব নেতাকে গণভবনে ডাকা হয়নি।

চলতি বছরের ২০ ডিসেম্বর এ (বর্তমান) কমিটির মেয়াদ শেষ হবে। আওয়ামী লীগের রীতি অনুযায়ী ডিসেম্বরে নতুন সম্মেলন হবে। তাই জাতীয় সম্মেলনকে ঘিরে দলটির এ সভাকে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন নেতারা। এ সভায় আসন্ন জাতীয় সম্মেলন ছাড়াও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য মাঠ পর্যায়ের প্রস্তুতি, দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীসহ কয়েকটি দিবসের কর্মসূচি ও সমসাময়িক জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে আলোচনাসহ সাংগঠনিক বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে কেন্দ্রীয় নেতারা যুগান্তরকে জানিয়েছেন।

জানা গেছে, সভায় অংশগ্রহণের জন্য শুক্রবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে নেতাদের করোনা টেস্ট করানো হয়। যাদের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে, তারাই কেবল আজকের সভায় অংশ নিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের আজকের সভায় ১২টি এজেন্ডা (আলোচ্যসূচি) রয়েছে। এগুলো হলো-শোক প্রস্তাব পাঠ, ১৭ মে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, ২৫ মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী, ৭ জুন ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস, ১১ জুন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস, ২৩ জুন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, ৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী, ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, সমসাময়িক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিষয়, সাংগঠনিক এবং বিবিধ।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম গতকালই (শুক্রবার) আভাস দিয়েছেন, শনিবারের বৈঠক থেকে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে