• আজ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিকের নাম ভাঙিয়ে চাঁদা দাবি: থানায় জিডি

| নিউজ রুম এডিটর ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ১১, ২০২১ সারাদেশ

মোঃতারিকুর রহমান চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ সাংবাদিকের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকের ব্যাবস্থাপকের কাছে ডাকযোগে চিঠি পাঠিয়ে চাঁদা দাবি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় দৈনিক সকালের সময়ের জীবননগর প্রতিনিধি মহিবুল ইসলাম মুকুল ও দৈনিক এই আমার দেশ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার এইচ এম হাকিম বুধবার (১০ই নভেম্বর) জীবননগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলা শাখার সোনালী ব্যাংকসহ বেশকিছু ব্যাংকের ব্যাবস্থাপকের কাছে ডাকযোগে চিঠি পাঠিয়ে ৫০ হাজার টাকা করে চাঁদা দাবি করা হয়েছে। একই চিঠিতে দৈনিক সকালের সময়ের প্রতিনিধি মহিবুল ইসলাম মুকুল ও দৈনিক এই আমার দেশ এর প্রতিনিধি এইচ এম হাকিমের নাম উল্লেখে করে চাঁদা দাবি করা হয়।

চিঠিতে বলা হয়, “সুধী, আপনি অবগত আছেন যে, বাংলাদেশের বহুপ্রচারিত গণমানুষের মুখপত্র দৈনিক এই আমার দেশ ও দৈনিক সকালের সময় নিয়মিত গণমানুষের কথা বলছে। দেশ ও জাতিকে এগিয়ে নেওয়ায় এই পত্রিকার মূল উদ্দেশ্য। আপনার প্রতিষ্ঠানে একের পর এক ঘুষ ও দুর্নীতি করে চলেছেন। অনেক ইলেকট্রনিক্স দোকানিরা অধিক মুনাফার লোভে সাধারণ মানুষকে জিম্মী করে সুদের মত ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। পত্রিকার প্রচার দ্বিগুণ করার লক্ষ্যে আপনাকে পঞ্চাশ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে চিঠি পাওয়া মাত্র। উপজেলা প্রতিনিধিকে দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। যদি দিতে ব্যর্থ হন আপনার বিরুদ্ধে সকল দুর্নীতি প্রকাশ করা হবে।

ইতিমধ্যে জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান ও সীমান্ত ইউনিয়ন নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী মিল্টনের নামে দুর্নীতির নিউজ প্রকাশ করা হয়েছে”।

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জীবননগর শাখার ব্যাবস্থাপকের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পারেন সাংবাদিক মহিবুল ইসলাম মুকুল। পরে এইচ এম হাকিম ও বিষয়টি জানতে পারেন। ঘটনা জানার পর তারা দু’জনই বিস্মিত হয়ে পড়েন। পরে তারা উভয়ই এ বিষয়ে জীবননগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

এ বিষয়ে মহিবুল ইসলাম মুকুল ও এইচ এম হাকিম অভিন্ন বাক্যে বলেন, “কোন স্বার্থান্বেষীমহল সমাজে আমাদের সুনাম ক্ষুণ্ন ও তাদের নিজেদের স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্য এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে।

আমরা এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। কোন পেশাদার সাংবাদিক এ ধরনের কাজ করতে পারে না। প্রশাসনের কাছে দাবি জানায়, যারা এ ধরনের কাজ করেছে তাদেরকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে