Peoplesnews24

পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী সাধন পান্ডে আর নেই

দীর্ঘ রোগভোগের পর অবশেষে না ফেরার দেশে চলে গেলেন পশ্চিমবঙ্গের ক্রেতা সুরক্ষা ও উপভোক্তা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সিনিয়র তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সাধন পান্ডে। রবিবার সকালের দিকে ভারতের মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি রেখে গেলেন তার মেয়ে কন্যা শ্রেয়া পান্ডেকে।

দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন সাধন পান্ডে। অসুস্থ অবস্থাতেই গত বছরের মার্চ-এপ্রিল মাসে বিধানসভার নির্বাচনে কলকাতার মানিকতলা কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেছিলেন। কিন্তু এরপর হঠাৎ করেই আরো বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। ভর্তি ছিলেন কলকাতার হাসপাতালে। এরপর উন্নততর চিকিৎসার জন্য তাকে মুম্বাইয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। গত কয়েক মাস ধরে সেখানেই চিকিৎসারত ছিলেন। কিন্তু জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন রাজ্যটির এই সিনিয়র মন্ত্রী ও নেতা।

ক্রেতা সুরক্ষা ও উপভোক্তা মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি রাজ্য স্বনির্ভর ও সংযুক্ত দপ্তরের মন্ত্রী ছিলেন সাধন পান্ডে। তবে অসুস্থতার কারণে তার ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছিল মানস ভুঁইয়ার হাতে। বদলে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী ছিলেন সাধন পান্ডে।

১৯৯৫ সালে কলকাতা বরোতলা বিধানসভা কেন্দ্রে প্রথম বার বিধায়ক নির্বাচিত হন। ২০০৬ সাল পর্যন্ত সেখানকার বিধায়ক ছিলেন। এরপর তৃণমূলে যোগ দিয়ে মানিকতলা কেন্দ্র থেকে পরপর তিনবার ভোট যেতেন তিনি।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। টুইট করে মমতা লেখেন ‘আমাদের সিনিয়র সহকর্মী, দলের নেতা এবং ক্যাবিনেট মন্ত্রী সাধন পান্ডে আজ সকালে মুম্বাইয়ের প্রয়াত হয়েছেন। তার সাথে দীর্ঘদিন ধরেই আমার একটা সুসম্পর্ক ছিল। তার এই চলে যাওয়ায় আমি গভীরভাবে ব্যতিত। তার পরিবার, বন্ধু এবং অনুরাগীদের প্রতি আমার সমবেদনা।’

সাধনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাজ্যটির রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার।


Posted

in

,

by

Tags: