• আজ ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রস্তাবিত বাজেট ‘স্মার্ট লুটপাটের’: আমির খসরু

জাতীয় সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘স্মার্ট লুটপাট’র বাজেট বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেট অবশ্যই স্মার্ট বাজেট। এতো স্মার্টলি লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা কোনো সরকার বা দলের লোকজন পাচার করতে পারবে? এতো স্মার্টলি ব্যাংক লুটপাট, সিন্ডিকেট পরিচালনা,জনগণের সম্পদ লুট করতে পারবে? সেই দিক থেকে এই বাজেট স্মার্ট, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

বৃহস্পতিবার বিকালে বানানীর নিজ বাসায় প্রস্তাবিত বাজেট পরবর্তী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির অন্যতম নীতিনির্ধারক আমির খসরু এই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

আওয়ামী লীগ সামষ্টিক অর্থনীতি ভেঙে দিয়েছে অভিযোগ করে সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী খসরু বলেন, একটি দলীয় চিন্তার ভিত্তিতে পৃষ্ঠপোষকতার-লুটপাটের অর্থনৈতিক মডেল সৃষ্টি করে বাংলাদেশের গত ৩০ বছরের যে কষ্টের মাধ্যমে সামষ্টিক অর্থনীতি যেখানে এসে দাঁড়িয়ে ছিল তারা সেটা ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে। যে জন্য তারা আজকে আইএমএফ-ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের দ্বারে যাচ্ছে। সবার দ্বারে যাচ্ছে, কোনো ব্যাংক বাকি নেই। বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা ছাপাতে হচ্ছে এখানে। টাকা ছাপিয়েও কুলাতে পারছে না। এখান থেকে বের হতে হলে এই অবৈধ দখলদার সরকার বিদায় করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে মনে করেন তিনি।

খসরু বলেন, দেশের বাইরে ও ভেতর থেকে তারা যে ঋণ নিচ্ছে, এটা শোধ করতে হবে বাংলাদেশের মানুষকে। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে ঋণ নিয়ে ঘি খাচ্ছে। খসরু বলেন, ভাড়া, চাঁদা আর কমিশন ভিত্তিক অর্থনীতি করছে সরকার। যার দায়ভার জনগণকে দিতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যের দাম কমাতে গেলে সরকারের সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ কমাতে হবে, টাকার মান বাড়াতে হবে ডলারের বিপরীতে লুটপাট বন্ধ করতে হবে। না হলে মূল্যস্ফীতি কমানো যাবেনা। জিনিসপত্রের দাম কমানো সম্ভব হবে না।