• আজ ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তানোরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

| নিউজ রুম এডিটর ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ | জুন ৮, ২০২৩ অপরাধ-দুর্নীতি

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর তানোর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সরনজাই ইউনিয়নের (ইউপি) আলোচিত প্রতারক চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁনের বিরুদ্ধে এবার প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। তিনি পাওনাদারের দেনা পরিশোধ করতে যেই ব্যাংক একাউন্টের চেক দিয়েছেন সেই হিসাব নম্বরে কোনো টাকা জমা নাই। এই ঘটনায় মোহনপুর উপজেলার ধুরইল গ্রামের আব্বাস আলীর পুত্র রবিউল ইসলাম বাদি হয়ে মোজাম্মেল হক খাঁনের বিরুদ্ধে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্ত্ত অজ্ঞাত কারণে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন নবনবী মৌজায় তার খমার বাড়িসহ ৯৩ বিঘা জমি ইজারা ও আলু দেবার নামে রবিউল ইসলামের কাছে থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়েছেন। কিন্ত্ত জমি ও আলু না দিয়ে ষ্ট্যাম্প ছিড়ে ফেলে এবং কয়েক কিস্তিতে টাকা পরিশোধ করে। এখানো তার কাছে এক লাখ ৬০ হাজার ৩০৯ টাকা বাঁকি আছে। এদিকে ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন কৃষি ব্যাংক কালীগঞ্জহাট শাখার এক লাখ ৬০ হাজার টাকার একটি চেক দেন রবিউল ইসলামকে। রবিউল ইসলাম টাকা উত্তোলনের জন্য চেক ব্যাংকে জমা দেন। কিন্ত্ত ব্যাংক থেকে জানানো হয় ওই হিসাব নম্বরে কোনো টাকা জমা নাই। অন্যদিকে চেয়ারম্যানের এমন প্রতারণার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে, উঠেছে সমালোচনার ঝড়। এবিষয়ে জানতে চাইলে রবিউল ইসলাম বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন তাদের যেই চেক দিয়েছেন সেই হিসাব নম্বরে কোনো টাকা জমা নাই। তিনি বলেন, চেয়ারম্যান তাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে তিনি এর বিচার চান। এবিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খাঁন বলেন, ব্যাংকে টাকা নাই সত্যি, তবে আগামিকাল টাকা জমা দিবো, তাদের আগামিকাল ব্যাংকে যেতে বলেছি।