• আজ ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লাকসাম – আখাউড়া ডাবল লাইন রেলপথের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

| নিউজ রুম এডিটর ৮:০১ অপরাহ্ণ | জুলাই ২০, ২০২৩ অর্থনীতি

কুমিল্লার লাকসাম থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পর্যন্ত ৭২ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার(২০ জুলাই) সকালে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে কুমিল্লার লাকসাম রেলওয়ে জংশন থেকে এই রেলপথের উদ্বোধন করেন তিনি।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এই নতুন রেলপথের এই নতুন ডাবল লাইন রেলপথে সর্বোচ্চ গতিবেগ ১২০ কিলোমিটার।আমরা রেলপথে গতি এনে দিয়েছি, তাই আমি রেলের চালকদের কাছে অনুরোধ করব তারা যেন জনবহুল এলাকায় রেল চলাচলের সময় নিরাপত্তার স্বার্থে গতিনিয়ন্ত্রণ করেন।এই ডাবল লাইন নির্মাণের ফলে ঢাকা চট্টগ্রাম সম্পূর্ণ রেলপথ ডাবল লাইন এ উন্নীত হবে।এই পথ নির্মাণের ফলে এক ঘন্টা সময় ভ্রমনে কমে আসবে।এতে রেল যাত্রা আরামদায়ক ও জনবান্ধব হবে।

আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই যারা এই প্রকল্পের সাথে যুক্ত থেকে সাধারণ মানুষের উন্নয়ন করেছেন।প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ নৌকাকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় এনেছে বলেই আমরা এই সেবা করতে পারছি।তাই অনুরোধ করবো তারা যেন আবার জামাত বিএনপিকে ভোট দিয়ে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় না দেয়।

গণভবন প্রান্ত থেকে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি বলেন,বঙ্গবন্ধুর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ রেলওয়ের সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন করেছেন।জনগণের ভোগান্তি দূর ও দুর্ভোগ দূর করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সর্বজন প্রশংসনীয়।আখাউড়াবাসীর পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।লাকসাম প্রান্ত থেকে এল জি আর ডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম এমপি বলেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া থেকে কুমিল্লা লাকসাম পর্যন্ত এই ডাবল লাইন রেলপথ নির্মান যাত্রা পথে গতি আনবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন – যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের পূর্ব শর্ত। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ রেলওয়ে উন্নয়ন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সভাপতি রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এমপি বলেছেন, প্রতিটি জেলার সাথে রেল যোগাযোগ সম্প্রসারণ করার প্রকল্প প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম স্বদিচ্ছা। নারায়ণগঞ্জ থেকে চট্টগ্রাম এবং টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত বিদ্যুতের মাধ্যমে যেন ট্রেন চলাচল শুরু হয় সে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আর উপস্থিত ছিলেন রেল মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম এমপি, নাসিমুল আলম এমপিসহ অন্যান্যরা।