• আজ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

কী খেলে প্লাটিলেট বাড়বে

| নিউজ রুম এডিটর ৬:২৯ অপরাহ্ণ | আগস্ট ৩, ২০২৩ স্বাস্থ্য

দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে গেছে। ঢাকার বাইরেও প্রচুর ডেঙ্গু রোগী ধরা পড়ছে। এই রোগের সবচেয়ে জটিল উপসর্গের মধ্যে একটি হচ্ছে রক্তের প্লাটিলেট কমে যাওয়া। কিছু খাবার আছে যেগুলো খেলে প্রাকৃতিকভাবেই প্লাটিলেট বাড়বে। আসুন জেনে নিই সেই সম্পর্কে-

বেদানার রস
এতে প্রচুর আয়রন থাকে। প্লাটিলেট স্বাভাবিক রাখতে এটি খেতে পারেন। বিশ্রামে থাকলে ডেঙ্গু থেকে তাড়াতাড়ি মুক্তি মেলে।

ডাবের পানি

ডাবের পানিতে খনিজ উপাদান রয়েছে। ডেঙ্গুজ্বরে শরীর থেকে যে খনিজ পদার্থ বের হয়ে যায় ঘামের মাধ্যমে, বমি ও ডায়রিয়ার মাধ্যমে। তখন খনিজের ঘাটতি পূরণে ডাবের পানি খাবেন। এটি শরীরের ইলেকট্রোলাইটসের ভারসাম্য রক্ষা করে এবং তাতে প্লাটিলেট স্বাভাবিক থাকে এবং ডেঙ্গু থেকে ভালো হয়ে যায়।

ওরস্যালাইন

মুখে খাওয়ার স্যালাইন। এটিও ডেঙ্গুর থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে ভূমিকা রাখে। কারণ এতে যে পরিমাণ লবণ রয়েছে তা ডেঙ্গুর সময় প্লেটলেট কাউন্টকে স্বাভাবিক রাখতে ভূমিকা পালন করে, রোগীকে দ্রুত সুস্থ করে তোলে।

আয়রন সমৃদ্ধ খাবার

শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে রক্তস্বল্পতা দেখা দিতে পারে। শরীরের টিস্যুতে বা কোষে পর্যাপ্ত অক্সিজেন ঠিকমতো পৌঁছাতে পারে না এবং যদি শরীরের কোষে পর্যাপ্ত অক্সিজেন না পৌঁছে তা হলে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ধীরে ধীরে নিস্তেজ হয়ে পড়বে অথবা ধীরে ধীরে বিকল হয়ে যাবে।

তাই পর্যাপ্ত পরিমাণে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খেলে তা লোহিত রক্তকণিকার মাত্রা এবং প্লাটিলেটের সংখ্যাও বাড়তে পারে।

ভিটামিন সি

ভিটামিন সি জাতীয় খাবার যেমন- লেবুর রস, মাল্টার রস এগুলো প্লাটিলেটের সংখ্যা বাড়াতে সাহায্য করে।

সবুজ শাকসবজি
আয়রন সমৃদ্ধ খাবার ভিটামিন সি যুক্ত খাবার এগুলো সহায়ক ভূমিকা পালন করে। ভিটামিন কে সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে রয়েছে পালং শাক এবং ডাবের পানিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন কে থাকে।

ভিটামিন কে প্লাটিলেটের পরিমাণ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে এবং দ্রুত সুস্থ করে।

আমলকি

প্লাটিলেট রক্ত জমাট বাঁধতে ও রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে সাহায্য করে। প্লাটিলেটের মাত্রা কমে গেলে রক্ত জমাট বাঁধতে পারে না। ফলে রক্তক্ষরণের ঝুঁকি দেখা দেয়।
আমলকীতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি থাকে। ভিটামিন সিগুলো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং সঙ্গে সঙ্গে প্লাটিলেট সংখ্যাও বেড়ে যায়।

দ্রুত সুস্থ হয়ে যায়
যার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যত ভালো সে তত দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠে। তাজা ফলের রস এবং প্রোটিনযুক্ত খাবার রোগীকে দ্রুত সুস্থ করে তোলে প্লাটিলেট কাউন্টটা বাড়াতে সাহায্য করে।