• আজ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বালু মহাল বন্ধ থাকার পরও! সুনামগঞ্জে বালু বোঝাই ট্রলার ডুবে দুই নৌ শ্রমিকের মৃত্যু

| নিউজ রুম এডিটর ৯:২২ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২১, ২০২২ সারাদেশ, সিলেট

ষ্টাফ রিপোর্ট: সুনামগঞ্জে বালু বোঝাই ট্রলার (ষ্টিলবডি) ডুবে ঘুমন্ত অবস্থায় দুই নৌ শ্রকিকের মৃত্যু হয়েছে।
নিহতরা হলেন,বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের মণিপুরী হাটির হানিফ মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেন (২১) একই গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে অনিক হাসান জনি(১৯)।

জেলার বিশ্বম্ভরপুর থানা এলাকার ধোপাজান চলতি নদী থেকে নিহত শ্রমিকদের লাশ মঙ্হলবার দুপুরের দিকে স্বজনরা উদ্যার করেছেন বলে নিশ্চিত করেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী।
বুধবার বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মো. ইকবাল হোসেন জানান, মঙ্গলবার দুপুরের দিকে নিহত শ্রমিকদের মরদেহ পুলিশ হেফাজতে নিয়ে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সরজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সোমবার রাতে বিশ্বম্ভরপুরের ধোপাজান চলতি নদী থেকে একাধিক ষ্টিল বডি ট্রলার বালু বোঝাই করে নদীর তীরে তীরে বালু পরিবাহী ট্রলারগুলো রেখে দেয়া হয় ফাঁক ফোঁকড়ে অন্যত্র সড়িয়ে নিতে।

এদিকে অন্যান্য বালু বোঝাই ট্রলারের ন্যায় শ্রমিক আনোয়ার ও অনিক হাসান জনি মহাজনের বালু বোঝাই ট্রলার মণিপুরী ঘাটে বেঁধে রেখে ট্রলারেই রাতে ঘুমিয়ে পড়েন। এরপর বৃষ্টির পানিতে ট্রলার ভরপুর হয়ে বালু সহ ট্রলারটি নদীতে ডুবে যায়। সেই সাথে নদীতেই সলিল সমাধী ঘটে ঘুমন্ত নৌ শ্রমিক আনোয়ার হোসেন ও অনিক হাসান জনির।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি জেলা ও উপজেলা প্রশাসন থেকে জেলার সবকটি হাওরের বোরো ফসলরক্ষা বাঁধ ওপারের পাহাড়ি ঢলের তোপ থেকে টিকিয়ে রাখতে ও বোরো ধান কাটাতে জনসার্থে জেলা সব কটি বালু মহাল বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে সম্প্রতি। অপরদিকে ধোপাজান চলতি নদী বালু মহাল সরকারি ভাবে গত কয়েকবছর ধরে ইজারা প্রদান করা হয়নি, তারপরও বালু লুট হচ্ছে ওই মহালের নদী থেকে। লাখ লাখ ঘনফুট বালু লুটে নিয়ে যাচ্ছে সরকারি মুল্য ,ভ্যাট আয়কর ছাড়াই।

জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে নির্দেশনা উপেক্ষা করে সোমবার রাতে বিশ্বম্ভরপুরের ধোপাজান চলতি নদীতে একাধিক ষ্টিল বডি ট্রলার বালু বোঝাই করা হল কোন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে?

বুধবার রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. সাদিউর রহিম জাদিদের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, ধোপাজান চলতি নদী বালু মহাল ইজারা দেয়া হয়নি, ওই মহাল থেকে বালু উক্তোলনে কারা জড়িত তাদেরকে খুজে বের কওর আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। দুই শ্রমিক নিহত হওয়ার বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি তবে ওই শ্রমিকরা যে বালু বোঝাই ট্রলারে ঘুমন্ত অবস্থায় ট্রলার ডুবে নিহত হয়েছেন তা আমার জানা ছিলনা। ।