• আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রতিটি মন্ত্রণালয় লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য সচেষ্ট থাকে

| নিউজ রুম এডিটর ৬:৫২ অপরাহ্ণ | জুন ২৫, ২০২৩ জাতীয়

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, সরকারের প্রতিটি মন্ত্রণালয় এখন প্রতিবছর তাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে এবং সেই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য সবাই সচেষ্ট থাকে। উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আমাদের জাতীয় লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী আমরা কতটুকু অগ্রসর হলাম, তা প্রতিবছর মূল্যায়নের সুযোগ সৃষ্টি করে দেয় বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি।

রোববার (২৫ জুন) স্থানীয় সরকার বিভাগের সভাকক্ষে এ বিভাগের আওতাধীন দপ্তর/সংস্থা/সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর ও ২০২২-২৩ অর্থবছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এতে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব মুহম্মদ ইবরাহিম।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমলাতন্ত্রকে জনবান্ধব করার জন্য যেসব উদ্যোগ নিয়েছেন তার মধ্যে বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি ও শুদ্ধাচার পুরস্কার অন্যতম। এ ধরনের উদ্যোগের মাধ্যমে রাষ্ট্রের কর্মচারীদের জনগণের সেবা দেওয়ার মন-মানসিকতা তৈরি হবে।

সবাই তার নিজ নিজ কাজের স্বীকৃতি চায় জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এ ধরনের অর্জনের মাধ্যমে রাষ্ট্র তার কর্মচারীদের ভালো কাজের স্বীকৃতি দিচ্ছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব মুহম্মদ ইবরাহিম সভাপতিত্বের বক্তব্যে শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্রাপ্ত সবাইকে অভিনন্দন জানান।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পুরস্কারপ্রাপ্তরা অন্যান্যদের জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবেন এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের সব কর্মচারী জনসেবায় আরও নিবিড়ভাবে নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করবেন।

উল্লেখ্য, ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে শুদ্ধাচার পুরস্কার পেয়েছেন- দপ্তর প্রধান হিসাবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সেখ মোহাম্মদ মহসিন, গ্রেড ০২-০৯ ক্যাটাগরিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী, গ্রেড ১০-১৬ ক্যাটাগরিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আমজাদ হোসেন, ১৭-২০ ক্যাটাগরিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের অফিস সহায়ক ছালেহ আব্দুর রহমান সরকার।