• আজ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

ফুল দিয়ে ফেরার পথে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ২০

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন, ক্রীড়া সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর দিদার হোসেন খন্দকারকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুর ১টার দিকে রামগতি থানা পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এর আগে সকাল পৌনে ৮টার দিকে উপজেলার আলেকজান্ডার বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- বিএনপি নেতা জামাল উদ্দিন, দিদার হোসেন খন্দকার, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক শাহ মোহাম্মদ রাকিব, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, রামগতি পৌর যুগ্ম-আহবায়ক আরিফ হোসেন রাব্বি ও ছাত্রলীগ রাকিবুল ইসলাম সাব্বিরসহ অন্তত ২০ জন। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

বিএনপি সূত্র জানায়, আ স ম আবদুর রব সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আলেকজান্ডার বাজারে পৌঁছলে আওয়ামী লীগের লোকজন বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করে। এ সময় উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিনসহ তাদের অন্তত ১৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। আওয়ামী লীগের লোকজন উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ও ভাঙচুর করেছে। পরে আহত অবস্থায় জামাল ও দিদারকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। আহত অন্যরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, বিএনপি নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে ফেরার পথে লাঠিসোটা নিয়ে মিছিল করে। এ সময় মিছিল থেকে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে উত্তপ্ত স্লোগান দেওয়া হয়। পরে স্লোগান ও লাঠি মিছিল বন্ধ করতে বললে তারা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। ইটপাটকেল ছুঁড়ে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আকবর হোসেন বলেন, আমাদের ওপর বিএনপির হামলা ও লাঠি মিছিল পূর্ব পরিকল্পিত। তাদের হামলায় আমাদের অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক অ্যাডভোকেট হাসিবুর রহমান হাসিব বলেন, কোনো কারণ ছাড়াই আওয়ামী লীগের লোকজন আমাদের ওপর হামলা করেছে। পরে আমাদের আহত দুই নেতাকে পুলিশ আটক করেছে। তাদের আটকের ঘটনায় নিন্দা জানাই।

এ ব্যাপারে রামগতি থানার ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, মিছিল থেকে বিএনপি নেতাকর্মীরা উত্তপ্ত স্লোগান দেয়৷ এতে আওয়ামী লীগ-বিএনপি নেতাকর্মীরা মুখোমুখি অবস্থান নেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থল থেকে ২ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।