• আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

লিকার চায়ে কমবে সুগার, বাড়বে ইমিউনিটি!

| নিউজ রুম এডিটর ১২:২৫ অপরাহ্ণ | মে ১২, ২০২২ লাইফ স্টাইল, লিড নিউজ

ধোঁয়া ওঠা চায়ে চুমুক দিতে কে না ভালোবাসেন! ঘুম থেকে উঠে এক কাপ গরম চা না খেলে অনেকেরই ঘুম কাটতে চায় না। সকালে চা প্রাত্যাহিক জীবনেরই একটা অংশ। তবে যেকোনো ধরনের চায়ের তুলনায় লিকার চা খেলে মিলতে পারে বেশি উপকার। আসলে চায়ের মধ্যে দুধ মেশালেই সেই চায়ের গুণ অনেকটাই কমে যায়। তাই চায়ে দুধ না মেশানোই ভালো।

চায়ের মধ্যে রয়েছে ভালো পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যালস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্লুরাইডস, ট্যানিন ইত্যাদি, যা আপনার শরীরকে ভালো রাখে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, এই চা পান করলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ থেকে শুরু করে পেটের স্বাস্থ্যও ভালো রাখতে সাহায্য করে।

এবার আসুন লিকার চায়ের গুণ সম্পর্কে বিশদভাবে জেনে নেওয়া যাক।

পেটের সমস্যা দূর করে: চায়ের মূল উপাদান হলো ট্যানিন, যা পেটের সমস্যা দূর করতে পারে। এমনকি পেট ভালো রাখতে ট্যানিন বেশ উপকারী। তাই পেটের সমস্যা থাকলে লিকার চা পান করতে পারেন।

ইমিউনিটি বাড়ায়: বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, চায়ে ভালো পরিমাণে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টই পারে ইমিউনিটি বাড়িয়ে দিতে। এক্ষেত্রে ইমিউনিটি ঠিক থাকলে আপনি অনেক রোগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য: ডায়াবেটিস রোগীরাও খেতে পারেন লিকার চা। এই চায়ে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি গুণ সুগার কমাতে কিছুটা হলেও সাহায্য করে। তবে চিনি ছাড়া চা খেতে হবে।

ত্বক ভালো রাখে: ত্বক ভালো রাখতে পারে লিকার চা। এই চায়ে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। এমনকি এই চা খেলে ত্বকের ওপর থেকে স্পটও দূর হয়ে যায়। এ ছাড়া এই চা পারে শরীরকে ডিটক্সিফাই করতে। ফলে মৃত ত্বক বেরিয়ে যায়।

তাই দিনে ২ থেকে ৩ কাপ লিকার চা খেতেই পারেন। তবে এই চা বেশি খেলেও সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই সতর্ক থাকুন। শরীরে কোনো সমস্যা থাকলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

সূত্র: এইসময়

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন পিপলস নিউজ‘এ । আজই পাঠিয়ে দিন feature.peoples@gmail.com মেইলে