• আজ ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোলার ইলিশায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের উপরে হামলা; থানায় মামলা

| নিউজ রুম এডিটর ৯:২৩ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৪, ২০২২ সারাদেশ

বিশেষ প্রতিনিধি: ভোলা সদর উপজেলার অন্তর্ভুক্ত পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের সদুরচরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে পরিপক্ষের উপরে বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২১/১০/২০২২ইং সকাল আনুমানিক ১১ ঘটিকায়, ভুক্তভোগী আলমগীর সিকদার (৫০) এর বসতবাড়ির পাশে নিজ জমিতে লাগানো সুপারি বাগানের সুপারি জোরপূর্বক পাড়তে আসে আব্দুল হাই (৫০) মাকসুদ (৩৫) হারুন (৩২) রাকিব (৩০) রাসেল (২৮) হাবিব (২৬) নিয়ান (২০) সালমা ২৮ সহ ৮/১০ জনের একটি সন্ত্রাসী দল।

এ সময় বাগানের মালিক আলমগীর সিকদার বাধা দিলে উক্ত সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল তার উপরে বর্বরোচিত হামলা চালায়। এঘটনা দেখে আলমগীর সিকদারের স্ত্রী উম্মে কুলসুম (৪৬) স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তার উপরেও ধারালো অস্র দিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা, এসময় তার গলায় থাকা একটি সোনার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায় তারা।

সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ফেরার পথে ভুক্তভোগীর ২ ছেলে রুহুল আমিন (৩০) ও আলাউদ্দিন (২৮) এর উপরেও ধারালো অস্র দিয়ে হামলা চালিয়ে তাদেরকে মারাত্মক আহত করে চলে যায়।

ভুক্তভোগী আলমগীর সিকদারের ছেলে রুহুল আমিন জানান, হামলাকারী আব্দুল হাই গংদের অত্যাচারে দীর্ঘদিন আমরা জিম্মি। হামলাকারীদের হামলায় আলমগীর সিকদারের বসতঘরেরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

এদিকে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক প্রত্যক্ষদর্শীদের কয়েকজন জানান, আঃ হাই গংদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকা বাসী, তারা অন্যের জমি দখল, নারী নির্যাতন থেকে শুরু করে এমন কোন অপকর্ম নেই যা তারা করেনা।

ভুক্তভোগীর ছেলে রুহুল আমিন (৩০) বাদী হয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ভুক্তভোগী পরিবারটি সমাজ ও প্রশাসনের কাছে সঠিক বিচার কামনা করেন।