• আজ ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামের খলিলগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ অধ্যক্ষ মদ্যপ অবস্থায় কলেজে অসুস্থ  

| নিউজ রুম এডিটর ১:০২ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৭, ২০২৩ কুড়িগ্রাম, সারাদেশ
মোঃবুলবুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রাম শহরের খলিলগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ এসএম সালাউদ্দিন রুবেলের বিরুদ্ধে কলেজে বসে মদ পান করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (১৬ অক্টোবর)  দুপুরে কলেজে নিজ কক্ষে ‘মদ্যপ অবস্থায়’ অসুস্থ হয়ে পড়লে দুইজন শিক্ষক তাকে বাড়িতে পৌঁছে দেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কলেজের একাধিক শিক্ষক, সাবেক শিক্ষার্থী ও গভর্নিংবডির অভিভাবক সদস্য এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
অভিভাবক সদস্য লিটন আলী ও এরশাদুল বলেন, ‘অধ্যক্ষ মদ্যপ অবস্থায় কলেজে নিজ কক্ষে পড়ে আছেন এমন খবর পেয়ে আমরা দুপুরে কলেজে যাই। আমরা গিয়ে তাকে মদ্যপ ও অসুস্থ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। তার কক্ষে মদের গন্ধ ছড়িয়ে ছিল। আমাদের দেখে মদের বোতল পকেটে রাখেন। পরে মোশরফ ও অনির্বাণ নামে দুইজন শিক্ষক তাকে ধরে বাড়িতে রেখে আসেন।’
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও প্রতিষ্ঠানের সাবেক শিক্ষার্থী রাকিব বলেন, ‘ আমি গিয়ে তাকে মদ্যপ ও অসুস্থ অবস্থায় দেখেছি। তার রুমে মদের গন্ধ ছিল।’
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কলেজের একজন প্রভাষক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘অধ্যক্ষ প্রায় নিয়মিত দুপুরের পর কলেজে বসে মদ পান করেন। এটা কলেজের সব শিক্ষক কমবেশি জানেন। আজ মদ্যপ অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তার এসব কর্মকান্ড নিয়ে শিক্ষকরা গভর্নিংবডির সভাপতিতে অভিযোগও করেছিলেন। তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলেও তা নেননি।’
অধ্যক্ষকে বাড়িতে রেখে আসা শিক্ষক মোশারফ বলেন, ‘ তিনি অসুস্থ বোধ করায় তাকে বাড়িতে রেখে এসেছি। মদ্যপ ছিলেন কিনা জানিনা।’ অপর শিক্ষক অনির্বানের নাম্বারে ফোন দিলে বন্ধ পাওয়া গেছে।
এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত অধ্যক্ষ সালাউদ্দিন রুবেলের নাম্বারে যোগাযোগ করে হলে তিনি জানান,আমারা মুল জ্বর সর্দি ছিল। তাই একটু অসুস্থ হয়ে পড়ি।
অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে কলেজে বসে মদ পান করার অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গভর্নিংবডির সভাপতি ও কুড়িগ্রামের সাবেক পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম বলেন, ‘আমি এই অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’
মোঃবুলবুল ইসলাম
কুড়িগ্রাম
০১৭২৭-৯৬৬৯২৯