• আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিয়া ঠান্ডা মাথার খুনি – হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

রফিকুল ইসলাম ফুলাল প্রতিনিধি দিনাজপুর : হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না উলেস্নখ করে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, বাংলাদেশের নাম মুছে দিতেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে পাকিস্তানি দোসররা।

রবিবার (৭ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে দিনাজপুর শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউডি) আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা ও প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সাংবাদিকদের মাঝে করোনাকালীন প্রণোদনার চেক বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হুইপ আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে সর্বোপরি নয় মাসের স্বশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। এই স্বাধীনতাকে মেনে নিতে না পারে জিয়ার নেতৃত্বেই বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারকে হত্যা করা হয়।

জিয়া হচ্ছে ঠান্ডা মাথার খুনি উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এখনও জিয়ার অনুসারি দলের নেতাকর্মীরা নানান ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তাই তারা বারবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। দেশের উন্নয়ন এখনো তারা সহ্য করতে পারছে না এবং মেনে নিতে পারছে না।

হুইপ ইকবালুর রহিম আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃঢ় নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আরও এগিয়ে যাবে। কোন ষড়যন্ত্রই বাংলাদেশের নাম মুছে দিতে পারে নি। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছে তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তলাবিহীন ঝুড়ির দেশ থেকে আজ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে গেছেন প্রধানমন্ত্রী। একটি সুখী সমৃদ্ধি দেশের কাছা কাছা পৌছে গেছি আমরা। ২০৪১ সালে আমাদের দেশ হবে বিশ্বের উন্নত দেশের মধ্যে একটি দেশ।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিক বান্ধব সরকার। গণমাধ্যমের যে কোন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত্ম সহানুভুতি ও সংবেদন শীল। সঠিক তথ্যের জন্য সাংবাদিকের দিকে তাকিয়ে থাকেন জাতি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংবাদপত্র ও সাংবাদিক সমাজের কল্যানে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে এবং সবসময় সাংবাদিকদের সকল সমস্যা সমাধানের জন্য আন্তরিকতার সাথে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

বিতরন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের অনুদান জেলার কর্মরত ৫৬ জন সাংবাদিককে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৫ লাখ ৬০ হাজার টাকার চেক এবং অস্বচ্ছল ও দুর্ঘটনায় আহত ১১ জন সাংবাদিককে আরও ৮ লাখ টাকার চেক বিতরন করা হয়। জেলায় মোট কর্মরত সংবাদ কর্মীদের হাতে ১৩ লাখ ৬০ হাজার টাকার প্রণোদনার চেক তুলে দেয়া হয়।

দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউডি)-এর সভাপতি আলহাজ্ব ওয়াহেদুল আলম আর্টিস্টের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক শাহীন হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, বিপিএম, পিপিএম (বার), বিএফইউজে’র সভাপতি ওমর ফারম্নক, মহাসচিব দীপ আজাদ, সাবেক সহ-সভাপতি চিত্ত ঘোষ, দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী শামীম, দিনাজপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র শফিকুল হক ছুটু, প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সুব্রত মজুমদার ডলাল, শহর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত এসএম খালেকুজ্জামান রাজু প্রমুখ।