• আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘মরক্কোর জন্য ২৬ জন নায়ক জীবন দিতেও প্রস্তুত’

| নিউজ রুম এডিটর ৮:১৯ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১০, ২০২২ খেলাধুলা, ফুটবল

গ্রুপপর্ব পেরোনোর পর মরক্কোর কোচ ওয়ালিদ রেগরাগুই যখন আফ্রিকার প্রথম দল হিসাবে তাদের বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যের কথা বলেছিলেন, অনেকেই মুচকি হেসেছিলেন। মরক্কোর কাছে টাইব্রেকারে হেরে শেষ ষোলো থেকে স্পেনের বিদায়ের পর সংশয়বাদীদের সেই অবিশ্বাসের হাসি মুছে গেছে। লালের বুকে এক তারকায় সাজানো মরক্কোর পতাকা এখনো দোর্দণ্ড প্রতাপে উড়ছে কাতারের মরুর বুকে। চতুর্থ আফ্রিকান ও প্রথম আরব দেশ হিসাবে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা মরক্কোর সামনে এবার আরও বড় এক ইতিহাসের হাতছানি।

দোহার আল থুমামা স্টেডিয়ামে শেষ আটের লড়াইয়ে আজ তাদের প্রতিপক্ষ পর্তুগাল। কঠিন এই বাধা পেরোতে পারলে বিশ্বকাপের ইতিহাসে আফ্রিকার প্রথম দল হিসাবে সেমিফাইনালে খেলবে মরক্কো। বিশ্বকাপের বিস্ময় মরক্কোকে নিয়ে শুরুতে ভাবার ফুরসতই পায়নি পর্তুগাল। শেষ ষোলোতে সুইজারল্যান্ডকে ৬-১ গোলে গুঁড়িয়ে দেওয়ার পর ঘর সামলাতেই ব্যস্ত ছিলেন দলটির কোচ ফার্নান্দো সান্তোস।

সুইসদের বিপক্ষে শুরুর একাদশে জায়গা হারিয়ে অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো নাকি কাতার ছেড়ে যাওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তাতে পর্তুগাল দলে অনেকে ভাঙনের সুর শুনতে পেলেও আপাতত ঝড় থেমেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে অনুশীলনে ফেরার পর রোনাল্ডোর কণ্ঠে উল্টো ঐক্যের ডাক, ‘আমাদের একতা বাইরের কোনো শক্তি ভাঙতে পারবে না। জাতি হিসাবে আমরা সাহসী। সামনে যে প্রতিপক্ষই থাকুক না কেন, আমরা ভয় পাই না। আমরা এমন এক দল, যারা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত স্বপ্নপূরণের জন্য লড়বে। আমাদের ওপর বিশ্বাস রাখুন।’

আপাতত শান্ত হলেও শুরুর একাদশে আজও হয়তো জায়গা হবে না রোনাল্ডোর। সুইসদের বিপক্ষে তার জায়গায় সুযোগ পেয়ে দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকে কোচের সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করেছেন পর্তুগালের নতুন নায়ক গনসালো রামোস। ২১ বছর বয়সি বেনফিকা ফরোয়ার্ডের মতো ব্রুনো ফার্নান্দেস, জোয়াও ফেলিক্স ও বের্নার্দো সিলভাও আছেন দারুণ ছন্দে। চার ম্যাচে যৌথ সর্বোচ্চ ১২ গোল করেছে পর্তুগাল।

আজ পর্তুগালের ক্ষুরধার আক্রমণভাগের সঙ্গে মরক্কোর জমাট রক্ষণের লড়াইটা জমবে বেশ। তিন মাস আগে রেগরাগুই কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পর সাত ম্যাচে মাত্র এক গোল হজম করেছে মরক্কো, সেটিও আত্মঘাতী! রক্ষণের কাণ্ডারি আশরাফ হাকিমি আছেন দারুণ ছন্দে। গোলকিপার ইয়াসিন বুনুর কাছে হার মানতে হয়েছিল স্পেনকে।

রেগরাগুইয়ের ভাষায়, ‘আমি জাদুকর নই। আমার দলে কোনো জাদুকরও নেই। আছে ২৬ জন নায়ক। জন্ম যেখানেই হোক, মরক্কোর জন্য তারা জীবন দিতেও প্রস্তুত।’