• আজ ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজিবির অভিযানে দর্শনা সীমান্ত এলাকায় ১১টি বার উদ্ধার আটক ১

| নিউজ রুম এডিটর ৭:১০ অপরাহ্ণ | জুন ২৪, ২০২৩ সারাদেশ

মো:তারিকুর রহমান স্টাফ রিপোর্টার :চুয়াডাঙ্গার দর্শনা সীমান্তে চোরাচালানবিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৮১৬ গ্রাম ওজনের ১১টি স্বর্ণের বারসহ তরিকুল ইসলাম (৩২) নামের এক যুবককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। শনিবার (২৪ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দর্শনা থানাধীন ঝাঝাডাঙ্গা গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত তরিকুল ইসলাম দর্শনার পারকৃঞ্চপুর-মদনা ইউনিয়নের পারকৃঞ্চপুর গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে।

গণমাধ্যমকে বিজিবি জানায়, দর্শনার সুলতানপুর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে স্বর্ণের বার পাচার করা হবে এমন তথ্যের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬ বিজিবি) এর অধীনস্ত সুলতানপুর বিওপির নায়েক রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহল দল ঝাঝাডাঙ্গা গ্রামের পাকা রাস্তার পাশে অবস্থান গ্রহণ করেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একজন ব্যক্তিকে হেঁটে ঝাঝাডাঙ্গা গ্রামের মধ্য দিয়ে সীমান্তের দিকে যেতে দেখলে বিজিবির সশস্ত্র টহল দল তাকে চ্যালেঞ্জ করেন। বিজিবির সশস্ত্র টহল দলকে দেখে ওই ব্যক্তি দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে টহল দল ‍দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে তাকে ধাওয়া করে আটক করেন। এসময় আটক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রাথমিকভাবে তার কাছে কোনো চোরাচালানি পণ্য নেই বলে তিনি বিজিবিকে জানান।

পরে বিজিবি টহলদল আটক চোরাকারবারির দেহ তল্লাশি করে কোমরে লুঙ্গির ভাজে অভিনব কায়দায় সাদা স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ৮১৬ গ্রাম ওজনের ছোট-বড় মিলিয়ে মোট ১১টি স্বর্ণের বার জব্দ করেন। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৭০ লাখ টাকা। এসময় তার কাছ থেকে ১টি মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়। শুল্ক কর ফাঁকি দিয়ে আমদানিকৃত অবৈধ স্বর্ণের বার পরিবহন ও নিজ জিম্মায় রাখার অপরাধে আটককৃত আসামির বিরুদ্ধে দর্শনা থানায় মামলা দায়ের এবং স্বর্ণের বারগুলো চুয়াডাঙ্গা ট্রেজারি অফিসে জমা দেওয়ার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।