• আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লাঠিহাতে নিয়ে টিসিবি’র পণ্য কিনছেন শতবর্ষী হাজেরা

| নিউজ রুম এডিটর ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ২৩, ২০২৩ সারাদেশ

তখন সময় সকাল সাড়ে ১০ টা। রোদের তাপও বেশি। এমন সময় শতবর্ষী এক বৃদ্ধা মহিলা লাঠিহাতে নিয়ে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর পণ্য সংগ্রহ করতে লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। বয়সের ভারে হাত-পা কাঁপছেতে তাঁর। ভালোভাবে কথাও বলতে পারে না। কিন্তু ছেলে মেয়ের সহযোগিতা না পাওয়ায় বৃদ্ধা বয়সে তাকেই আসতে হলো টিসিবির পণ্য কিনতে।

কাছে গিয়ে নাম জানতে চাইলে বলেন,তাঁর নাম হাজেরা খাতুন। বয়স প্রায় ১০০ বছর ছুঁইছুঁই। তিনি উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের নয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

আপনি কেন এসেছেন জানতে চাইলে বলেন,”অবাজি কি গইজ্জম,এড়ে জিনিস দেদ্দে এগিন লইবল্লাই আইস্যিদে এরি “। অর্থাৎ ওহ্ বাবা কি করবো, এখানে পণ্য (টিসিবি) দিচ্ছে যে, সেগুলো নেওয়ার জন্যই এসেছি। ছেলে মেয়ে আছে কিনা জানতে চাইলে বলেন,ছেলে আছে, তবে বিয়ে করে আলাদা হয়ে গেছে। মেয়ে একটা আছে ঘরে, সেও আসতে পারছে না। তাই বুড়ো বয়সে তিনি নিজেই এসেছেন টিসিবির পণ্য সংগ্রহ করতে।

শনিবার ( ২২ জুলাই) টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কানজর পাড়া এলাকায় ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর পণ্য বিক্রি করা হয়। এসময় জনপ্রতি দুই লিটার তেল,দুই কেজি ডাল ও পাঁচ কেজি করে চাল বিক্রি করছেন ডিলার জামাল। এসব পণ্য কিনতে বৃদ্ধা হাজেরা খাতুনকে লাঠিহাতে নিয়ে লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় দেখা যায়। শুধু হাজেরা খাতুন নয়,এভাবেই মহিলা-পুরুষসহ শতশত মানুষ লাইনে দাঁড়িয়ে টিসিবি’র পণ্য সংগ্রহ করছেন। অল্প দামে এসব পণ্য পেয়ে অনেকে বেশ খুশি। অনেকে এসব পণ্য অল্প মূল্যে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এবং প্রধানমন্ত্রী প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

হোয়াইক্যং ইউনিয়নের টিসিবির পণ্যের ডিলার মেসেস জামাল স্টোরের মালিক মুহাম্মদ জামাল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া টিসিবি’র পণ্য আমরা ন্যায্যমূল্যে মানুষের কাছে ঠিকভাবে পৌঁছে দিচ্ছি। চালের দাম নিচ্ছি প্রতি কেজি শুধুমাত্র ৩০ টাকা করে।

টেকনাফ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুজ্জামান বলেন,মানুষের ক্রয় ক্ষমতা যেন সীমাবদ্ধ থাকে, কোনো মানুষ যেন খাবার নিয়ে কষ্ট না পায়, সে চিন্তা করে দেশের মানুষের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই উদ্যোগটা নিয়েছেন। এতে করে মানুষও উপকৃত হবে,মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগটাও সফল হবে। এসব পণ্য মানুষ পাচ্ছে এবং ঠিকভাবে যেন ভবিষ্যতেও পায় সে লক্ষ্যে সবসময় তদারকি করছেন বলেও জনান তিনি।