• আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকাপ যুদ্ধে মাঠে নামছে ভারত-পাকিস্তান

| নিউজ রুম এডিটর ৮:৪০ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ১৪, ২০২৩ ক্রিকেট, খেলাধুলা

ওয়ানডে বিশ্বকাপের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ের অপেক্ষায় ক্রিকেট বিশ্ব। সেই লড়াইয়ে মাঠে নামছে দুই পরাশক্তি ভারত ও পাকিস্তান। নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচই জয় দিয়ে শুরু করেছে তারা। এবার প্রথমবারের মতো হারের স্বাদ পাবে যেকোনো একটি দল। সেই দল কী স্বাগতিক ভারত, নাকি পাকিস্তান?

বিশ্বকাপের অন্যতম আকর্ষণীয় ম্যাচে কেবল মাঠেই নয়, দর্শকদের মধ্যেও চলে জয়-পরাজয়ের উন্মদনা। ছবি : সংগৃহীত
বিশ্বকাপের অন্যতম আকর্ষণীয় ম্যাচে কেবল মাঠেই নয়, দর্শকদের মধ্যেও চলে জয়-পরাজয়ের উন্মদনা।

শনিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ১২তম ম্যাচে মুখোমুখি হবে ভারত ও পাকিস্তান। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়ের ধারা ধরে রাখতে বদ্ধপরিকর টিম ইন্ডিয়া। আর পাকিস্তানের লক্ষ্য এবার বিশ্বকাপের তৃতীয় জয় তুলে নেয়া।

ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর দ্বৈরথ ধরা হয় এই দুই দলের লড়াইকে। হাইভোল্টেজ সে ম্যাচকে ঘিরে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে যায় পুরো দুনিয়া। এবার কিছুটা এগিয়ে রয়েছে ভারত। টপ অর্ডার এবং বোলিং লাইনআপ মিলিয়ে দুর্দান্ত ছন্দে আছে ভারতীয়রা।

এ দিকে গত দুই ম্যাচে জ্বরের কারণে শুভমান গিলকে না পাওয়া গেলেও এ ম্যাচে তাকে পাওয়া নিয়ে সম্ভাবনার বাণী শোনা গেছে রোহিতের কণ্ঠে। তবে ভারতীয় বিভিন্নমাধ্যম জানিয়েছে, গিল এখনও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেননি। ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেছেন,
ঘরের মাঠে খেলা হওয়ায় ভালো সুবিধা পাবো, সেটা কাজে লাগাতে চাই। অতীত নিয়ে ভাবতে চাই না। চ্যালেঞ্জটা নিতে মুখিয়ে আছি। গত দুই ম্যাচের ছন্দ ধরে রেখে এ ম্যাচটিতেও খেলতে চাই। দলের প্রয়োজন অনুযায়ী একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে।

অন্য দিকে হারিস-শাহিনদের পেস অ্যাটাক খানিক ভাবনার কারণ হতে পারে ভারতের জন্য। আর রিজওয়ানের সাম্প্রতিক ফর্মে যেকোনো মূল্যে আসরের তৃতীয় জয় তুলে নিতে বদ্ধপরিকর মেন ইন গ্রিনরা।

পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম বলেছেন, ‘ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামার জন্য দর্শকদের পাশাপাশি আমরাও অপেক্ষায় আছি। আমার মনে হয় দুদলই নিজেদের সেরাটা দিয়েই মাঠে খেলবে। তবে আমাদের বাড়তি নজর থাকবে ভারতের টপ অর্ডারে।’