• আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুয়াকাটার জাহাঙ্গীর আলম পেলো বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ সম্মাননা সেবা পদক বিপিএম

| নিউজ রুম এডিটর ৮:৫৯ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২১, ২০২২ পটুয়াখালী, সারাদেশ

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: কুয়াকাটার মো: জাহাঙ্গীর আলম ২০০৫ সালে কৃতিত্বের সাথে বিসিএস (পুলিশ) সার্ভিসে যোগদান করেন। এর আগে তিনি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে বিশেষ দক্ষতার স্বীকৃতিস্বরূপ “আইজি ব্যাজ” প্রাপ্ত হয়েছেন। ইতিপূর্বে তিনি আইভরিকোস্ট ও দারফুর, সুদানে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশনে কাজ করে জাতিসংঘ শান্তি পদক পেয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ২০২২ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন তথ্য থেকে জানা গেছে, ২০২০ সালে পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি পেয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)তে ঢাকায় যোগদান করে তিনি বহুসংখ্যক ক্লুলেস মামলার রহস্য উদঘাটন এবং অনেক লোমহর্ষক হত্যাকান্ডের অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসেন। এর স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২১ সালে তাকে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সর্বোচ্চ পদক বিপিএম সেবায় ভূষিত করা হয়। আগামী ২৩ জানুয়ারি ২০২২ থেকে শুরু হবে পুলিশ সপ্তাহ। ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর এ পদক প্রদান করবেন বলে তথ্য সূত্র জানা যায়।

উল্লেখ্য, পুলিশ সুপার মো: জাহাঙ্গীর আলমের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানার ধুলাস্বও ইউনিয়নের নতুনপাড়া গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মো: আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার একজন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক এবং নিবেদিতপ্রাণ সমাজকর্মী। মো: জাহাঙ্গীর আলম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ে ২০০১ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন শেষে ২০০৫ সালে কৃতিত্বের সঙ্গে ২৪তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন। তিনি সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে ডিএমপি, ঢাকা জেলা, পিএসটিএস, বেতবুনিয়া এবং র্যা পিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৩, টিকাটুলি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে তিনি অত্যন্ত দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে বরগুনা এবং ঝালকাঠি জেলায় দায়িত্ব পালন করেছেন।