• আজ ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাতীবান্ধায় ইজিপিপি’র তালিকা তৈরীতে নয়ছয়

| নিউজ রুম এডিটর ৭:৫৭ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২২ লালমনিরহাট, সারাদেশ

আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান ইউনিয়নে অতি দ্ররিদ্র পরিবারের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসুচী (ইজিপিপি)’র ১ম পযার্য়ে শ্রমিকদের তালিকা তৈরীতে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের সুপারিশকৃর্ত অনুমোদিত তালিকা বাদ দিয়ে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদার নিজের মন মত তালিকা তৈরী করে ইতোমধ্যে প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছেন। অভিযোগ উঠেছে, ওই নতুন তালিকায় অতি দ্ররিদ্র ব্যক্তিকে বাদ দিয়ে অনেক স্বচ্ছল ব্যাক্তির নাম স্থান পেয়েছে। এ নিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার যেন কোনো মাথা ব্যাথাই নেই।

জানা গেছে, ওই উপজেলায় ২০২১-২২ অর্থ বছরে যখন অতি দ্ররিদ্র পরিবারের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসুচী (ইজিপিপি)’র ১ম পর্যায়ে শ্রমিকদের তালিকা তৈরী করা হয় তখন পরিষদ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদ সচিবগন। তারা সকলের সাথে সমন্বয় করে তালিকা তৈরী করে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে জমা দেন। সবার মত সানিয়াজান ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সরাফত আলীও ওই ইউনিয়নে ১০৮ জনের একটি সুবিধাভোগীর তালিকা তৈরী করে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের সুপারিশ নিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে জমা দেন। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে, আওয়ামীলীগ সমর্থিত নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদার দায়িত্ব নিয়ে পুর্বের তালিকা বাদ দিয়ে নিজেই একটি তালিকা তৈরী করে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে জমা দিলে এ নিয়ে জটিলতা দেখা দেয়। নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদারের তালিকায় পুর্বের সুবিধাভোগীদের অনেকের নাম নেই। তালিকা নিয়ে জটিলতা না কাটলেও প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছেন নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদার। অনুমোদিত তালিকার সুবিধাভোগীদের অভিযোগ তারা কাজ করতে গেলে তাদের কাজে বাঁধা দেয়া হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের সুপারিশ উপেক্ষা করে নিয়ম নীতির তোয়াক্ক না করেই পুর্বের সুবিধা ভোগীদের তালিকা বাদ দিয়ে নতুন তালিকা তৈরীর ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীসহ সব মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সরাফত আলী সকলের সাথে সমন্বয় করে তালিকা তৈরী করে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে জমা দেন। ওই তালিকায় স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন সুপারিশও করেছেন। কিন্তু সেই তালিকা উপেক্ষা করে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদার নিজের মন মত তালিকা তৈরী করে ইতোমধ্যে প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম শাহ যেন কোনো মাথা ব্যাথা নেই।

প্রথম তালিকার সুবিধাভোগী সুখজান, আন্না খাতুন, মনোয়ারা খাতুন, রেখা খাতুন জানান, আমাদের নাম তালিকায় ছিলো। পরে কে বাদ দিলো তা তো বুঝলাম না। তাদের অভিযোগ তাদের থেকে অনেক স্বচ্ছল ব্যাক্তির নাম নতুন তালিকায় স্থান পেয়েছে।

সানিয়াজান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তালুকদার বলেন, তিনি এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারবেন না। ইউনিয়ন পরিষদ সচিব ভালো বলতে পারবেন। তবে এ বিষয়ে একাধিকবার যোগযোগ করা হলেও সানিয়াজান ইউনিয়ন পরিষদ সচিব সরাফত আলীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম শাহ বলেন, সানিয়াজান ইউনিয়নে ইজিপিপি কর্মসুচীর তালিকা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। আগে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের সুপারিশসহ একটি তালিকা সচিব জমা দিলেও পরে পাল্টা আরো একটি তালিকা জমা পড়েছে। ইউএনও’র সাথে কথা বলে তালিকা চুড়ান্ত করা হবে।

হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল আমিন জানান, বিষয়টি তার জানা নেই । তিনি খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন।