• আজ ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আদিতমারী আ.লীগের সম্মেলন উপলক্ষে বর্ণিল সাজ

| নিউজ রুম এডিটর ৮:৪১ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ৭, ২০২২ লালমনিরহাট, সারাদেশ

আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ ব্যাপক আয়োজনের মধ্যে দিয়ে দীর্ঘ ৯ বছর পর লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সম্মেলনকে ঘিরে তৃণমুূলের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। কে হচ্ছেন সভাপতি আর কে হচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক তা নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। এই সম্মেলনকে ঘিরে চলছে উপজেলায় সাজ সাজ রব।

শনিবার ( ৮ অক্টোবর) আদিতমারী জিএস স্কুল এন্ড কলেজে মাঠে ত্রি- বার্ষিকী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। এছাড়াও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ অংশ নিবেন।

২০১২ সালে এই উপজেলায় আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে শওকত আলী ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলমকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। হঠাৎ সভাপতি শওকত আলীর মৃত্যুতে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব দেওয়া হয় রবিউল ইসলাম মানিককে।

আসন্ন আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে অনেকেরই নাম শোনা যাচ্ছে। তবে শেষ মুহুর্তে আগামী দিনের নেতৃত্বে কে আসবেন তার হিসাব মিলাতে ব্যস্ত সবাই।
বর্তমানে উপজেলা আওয়ামীলীগের দায়িত্বে রয়েছেন রবিউল ইসলাম মানিক সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) এবং সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম।

রবিউল ইসলাম মানিক ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্বে থাকলেও আগামীতে তার দায়িত্ব নেওয়ার সুযোগ কম তবে সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম আবারও সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক পদে আসছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও মাননীয় সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর একান্ত সহকারী মিজানুর রহমান উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামীলীগ কিংবা অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে সম্প্রতি দলকে নতুনভাবে উজ্জীবিত করে তুলেছেন। এক সময়ের ত্যাগী নেতৃবৃন্দ যারা সময়ের পরিক্রমায় অনেকটা অভিমান নিয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়েছিলো তাদেরকে আবারও দলীয় কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করে দলকে সুসংগঠিত করে তুলেছেন। ইতিহাসের সর্বাত্মক উজ্জীবিত অবস্থায় উঠে এসেছে আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের কার্যক্রম। এছাড়াও নতুন ও যোগ্য ব্যাক্তিদেরকে নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিটকে সৃজনশীল করে তুলে বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি তার নেতৃত্বে উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়ে নতুন নেতৃত্ব বেরিয়ে এসেছে।

ফলে আসন্ন আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন ও দক্ষ নেতৃত্ব মিজানুর রহমানকে দেখতে চায় দলটির নেতাকর্মীরা। দলটির নেতাকর্মীদের এ নিয়ে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা লক্ষ করা যায়।

উপজেলায় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা জানান, মিজানুর রহমান মিজান যেভাবে আদিতমারীতে দলকে সুসংগঠিত ও সজ্জিত করে তুলেছেন তা এর আগে কখনো হয়নাই। বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক কর্মসূচির মাধ্যমে কৌশলগতভাবে অত্র এলাকায় আওয়ামীলীগকে নতুন রুপে আবির্ভাব করতে পারা এ নেতৃত্বকে উপজেলার দায়িত্বে দেখতে চান তারা। এ ক্ষেত্রে রফিকুল আলম ও মিজান জুটিকে সেরা হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টজন।

দলটির উপজেলা সভাপতি পদে সারপুকুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধানের কথাও উঠে এসেছে।

এদিকে সভাপতি পদে ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীর নাম শোনা যাচ্ছে। জনবল ও দক্ষতার দিক থেকে তিনি সংগঠিত হলেও এর আগে তিনি উপজেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন। পরে আওয়ামীলীগে যোগদান করলেও হাইব্রিড হিসেবে আখ্যায়িত করছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। গুরুত্বপূর্ণ পদে তাকে দেওয়া হলে বিতর্ক আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহমুদ ওমর চিশতি নিজের প্রচারণা চালাচ্ছেন। তবে আদিতমারী উপজেলার আওয়ামীলীগের সমন্বয়কের দায়িত্ব প্রাপ্ত জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুজ্জামান আহমেদকে নিয়ে সম্প্রতি তার দেওয়া বিতর্কিত পোস্ট ও মন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রোপাগাণ্ডা, ভাদাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ইট ও ডিম ছুড়ে ডেলিগেটকে আহত করার ঘটনায় তিনি ছিটকে পড়বেন বলে মনে করা হচ্ছে।

সম্মেলন ঘুরে উত্তেজনা কিছুটা থাকলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ড্রোন, পাঁচটি ক্যামেরা সহ বিভিন্নভাবে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। সফল ও সুষ্ঠুভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করতে সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

এতে সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) রবিউল ইসলাম মানিক ও সঞ্চালনায় থাকবেন সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম।

এতে সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুজ্জামান আহমেদ। সম্মেলনের ২য় পর্বে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও ডেলিগেটদের মতামতের ভিত্তিতে নতুব নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে।

এ বিষয়ে আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সমন্বয়ক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুজ্জামান আহমেদ বলেন, উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ব্যাপক পরিসরে আদিতমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সম্মেলনে যোগ্য দেখে নেতৃবৃন্দ ও ডেলিগেটস আগামীর নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন। তারা আগামী দিনে দলকে সুসংগঠিত ও জাতীয় নির্বাচনে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করবেন।