• আজ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রতিরাতে প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে কিশোরীর অদ্ভুত কাণ্ড

| নিউজ রুম এডিটর ৭:২৭ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৩, ২০২৩ আন্তর্জাতিক

প্রতিরাতে লোডশেডিং হতো। প্রথম দিকে এর কারণ বুঝতে পারেননি গ্রামবাসী। পরে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী অফিসে অভিযোগ জানানো হয়। তাতেও সমাধান হয়নি। শেষমেশ বিদ্যুৎ বিভ্রাটের প্রকৃত কারণ জানতে পেরে অবাক গ্রামের বাসিন্দারা।

জানা যায়, রোজ রাতে প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে গ্রামের বিদ্যুৎসংযোগ বন্ধ করে দিত এক কিশোরী!অদ্ভুত এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বিহার রাজ্যের পশ্চিম চম্পারণ জেলার বেতিয়া এলাকায়।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে প্রতিরাতে গ্রামের বিদ্যুৎসংযোগ বন্ধ করে দিত ওই কিশোরী। এতে বিপাকে পড়েন গ্রামবাসী। চুরির ঘটনাও বেড়ে যায়।

কেন প্রতিরাতে লোডশেডিং হচ্ছে-তা নিয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী অফিসে অভিযোগ জানা গ্রামবাসী। কিন্তু সমাধান হয় না। শেষে ফাঁস হয়ে যায় ওই কিশোরীর কাণ্ড।

পরে কিশোরী ও তার প্রেমিককে হাতেনাতে ধরে ফেলেন গ্রামবাসী। গ্রামের মন্দিরে তাদের বিয়েও দেওয়া হয়। । রোববার এ ঘটনার কথা প্রকাশ্যে এসেছে।

পুলিশ সূত্রের বরাতে খবরে বলা হয়, রাজকুমার নামে এক যুবকের সঙ্গে প্রীতি কুমারী নামে ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক। প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করার জন্য প্রতিরাতে গ্রামের বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করত কিশোরী।

গত এক সপ্তাহে প্রতিরাতে গ্রামে লোডশেডিং হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েন বাসিন্দারা। এমনকি গ্রামে চুরির ঘটনাও বেড়ে যায়। বিদ্যুৎ দপ্তরে অভিযোগ জানিয়েও কোনো সমাধান হয়নি। পরে রহস্য উদঘাটনে তৎপর হন গ্রামবাসী। তারপরই এক রাতে প্রীতি ও রাজকুমারকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন কয়েকজন।

এ ঘটনায় রাজকুমারকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। এরপরই রাজকুমারের দলবলও গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দাকে মারধর করেন।

পরে রাজকুমার ও প্রীতির দুই গ্রামের বাসিন্দারা মিলে তাদের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। স্থানীয় একটি মন্দিরে বিয়ে হয় তাদের।